আমার স্বামী ঘরে ফিরেছে: আবু ত্ব-হার স্ত্রী

ঢাকা, শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ৯ ১৪২৮,   ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

আমার স্বামী ঘরে ফিরেছে: আবু ত্ব-হার স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৮ ১৮ জুন ২০২১   আপডেট: ১৬:৪২ ১৮ জুন ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নিখোঁজ আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান নিজ বাসাতেই অবস্থান করছেন। এই ইসলামি বক্তার প্রথম স্ত্রী হাবিবা নূর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আবু ত্ব-হার স্ত্রী ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, আল্লাহর কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া। আমার স্বামী ঘরে ফিরেছে। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।

শুক্রবার বেলা সোয়া দুইটার দিকে রংপুর নগরীর পায়রা চত্বর এলাকার সেন্ট্রাল রোডের বাসায় তিনি অবস্থান করছেন।

নিখোঁজ ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা ফিরেছেন নিজ বাসায়। ছবি: সংগৃহীত

আবু ত্ব-হার বোনজামাই মোহাম্মদ হানিফ বলেন, আমি তোহা ভাইয়ের স্ত্রীর ছোট ভাই জাকারিয়ার কাছ থেকে জানতে পেরেছি তাকে পাওয়া গেছে। তিনি এরই মধ্যে তার রংপুরের বাড়ির উদ্দেশ্য রওনা দিয়েছেন।

ইসলামি বক্তা ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডের আহলে হাদিস মসজিদ এলাকার বাসিন্দা। তবে তিনি প্রথম স্ত্রী হাবিবা নূর, দেড় মাসের ছেলে ও তিন বছরের মেয়েকে নিয়ে শালবন মিস্ত্রীপাড়া চেয়ারম্যান গলিতে ভাড়া বাসায় থাকেন।

ত্ব-হার দ্বিতীয় স্ত্রী সাবিকুন নাহার সারা। তিনি ঢাকার মিরপুর আল ইদফান ইসলামি গার্লস মাদ্রাসার পরিচালক ও শিক্ষক। তিন মাস আগে তাদের বিয়ে হয়েছিল।

আরও পড়ুন: কে এই আবু ত্ব-হা? কেন তাকে নিয়ে এত শোরগোল

দেশে সম্প্রতি সময়ে খুব জনপ্রিয় একজন বক্তা হয়ে উঠেছিলেন আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ওয়াজের ভিডিওগুলো খুব সমাদৃত হয়েছিল। আর ১০ জন বক্তার মতো গতানুগতিক ছিলেন না আবু ত্ব-হা। অত্যন্ত স্মার্ট, পরিষ্কার ও মানসম্মত বাংলায় চমৎকার বাচনভঙ্গিতে কথা বলেন তিনি। প্রস্তুতি নিয়ে, গুছিয়ে, বিষয়ের মধ্যেই থেকে টু দ্য পয়েন্টে কথা বলেন। উচ্চারণে আভিজাত্য স্পষ্ট। প্রচলিত ওয়াজের ভঙ্গি তার নয়। কোরাআনের আয়াত ও হাদিসের আরবি ইবারতও আনেন বক্তৃতায়।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১০ তারিখ বিকেল চারটার দিকে আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান রংপুর থেকে ভাড়া করা একটি প্রাইভেটকারে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তার সঙ্গে ছিলেন আবদুল মুহিত, ফিরোজ আলম ও গাড়িচালক আমির উদ্দিন ফয়েজ। পরে ওই দিন রাত থেকেই তারা নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় রংপুর নগরের কোতোয়ালি থানায় ১১ জুন ত্ব-হা আদনানের মা আজেদা বেগম জিডি করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে