পলিসি খোলার নামে বীমা কর্মীকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পলিসি খোলার নামে বীমা কর্মীকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৩ ১৫ জুন ২০২১  

(ছবি: সংগৃহীত)

(ছবি: সংগৃহীত)

ফরিদপুরের মধুখালীতে এক বীমা কর্মীকে গণধর্ষণের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার তাদের ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতাররা হলেন, উপজেলার আশাপুর গ্রামের ইমদাদ লস্কর, ফরহাদ শেখ, জুয়েল শেখ, লিটন এবং ফরিদ মোল্যা।

জানা যায়, মধুখালী উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ওই নারী একটি বেসরকারি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির মাঠকর্মী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। গত ১২ জুন অভিযুক্ত ইমদাদ লস্কর পরিচিত এক ব্যক্তিকে দিয়ে ওই নারীকে ফোন দিয়ে একটি বীমার পলিসি খুলবেন বলে জানান। পাশাপশি ভুক্তভোগীকে চর নওপাড়ায় আসতে বলেন। একইদিন দুপুরে ওই নারী চর নওপাড়া দাসপাড়া গ্রামে ইমদাদ লস্করের সঙ্গে দেখা করতে গেলে অভিযুক্ত ইমদাদ ভুক্তভোগীকে স্থানীয় একটি পুকুর পাড়ে নিয়ে যান।

পরে সেখানেই একটি টিনের দোচালা ঘরে তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় ওই স্থানে একই এলাকার ফরহাদ শেখ ও জুয়েল শেখ হাজির হয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে ভুক্তভোগী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে অভিযুক্তরা পালিয়ে যান। এ সময় ধর্ষণের শিকার ওই নারীর কাছে থাকা মোবাইল, টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যান লিটন ও ফরিদ মোল্যা নামে অপর দুই ব্যক্তি।

বিকেলে ওই নারীর জ্ঞান ফিরলে তিনি বাড়িতে চলে আসেন। পরে পরিবারের সদস্যরা ওই নারীকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টার ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় মধুখালী থানায় রোববার সকালে মামলা দায়ের করেন ওই নারী। মামলার পর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম