ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ, ফসলি জমি-বসতবাড়িতে জলাবদ্ধতা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৪ ১৪২৮,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ, ফসলি জমি-বসতবাড়িতে জলাবদ্ধতা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৭ ১৪ জুন ২০২১  

ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ করায় সামান্য বৃষ্টিতে শতাধিক ফসলি জমি ও বসতবাড়িতে জলাবদ্ধতা

ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ করায় সামান্য বৃষ্টিতে শতাধিক ফসলি জমি ও বসতবাড়িতে জলাবদ্ধতা

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার নলকা ইউনিয়নের দত্তকুশা কালিপুর গ্রামে ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাছ চাষ করায় সামান্য বৃষ্টিতে শতাধিক ফসলি জমি ও বসতবাড়িতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। এ নিয়ে স্থানীয় কৃষকদের ভোগান্তির শেষ নেই।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগে জানান, দত্তকুশা মৌজার দত্তকুশা কালিপুর গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে দেলোয়ার হোসেন আকন্দ ব্রিজের মুখ বন্ধ করে পুকুর খনন করে মাছ চাষ করায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। আর এ জলাবদ্ধতার কারণে অন্য জমির মালিকরাও জলাবদ্ধতার হাত থেকে রক্ষা পেতে বাধ্য হয়ে তারাও পুকুর খনন করছেন। 

স্থানীয়রা জানান, দ্রুত পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করলে এবং জলাবদ্ধতার কারণে ফসলি জমিতে আবাদ করা সম্ভব না। জলাবদ্ধতা দূরীকরণ ও ব্রিজের মুখ খুলে সচল করতে প্রশাসনের কাছে জোর দাবিও জানান তারা।

এ ব্যাপারে পুকুর মালিক দেলোয়ার আকন্দ বলেন, ব্রিজের মুখ বন্ধ করে যদি জলাবদ্ধতার সৃষ্টি ও জমির মালিকদের ক্ষতি হয় তাহলে ব্রিজের মুখ সচল করে দেব। 

সাহেবগঞ্জ ভূমি সহকারী কর্মকর্তা নূরুল ইসলাম বলেন, ব্রিজের মুখ বন্ধ করে জলাবদ্ধতা সৃষ্টির বিষয়টি শুনেছি, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

নলকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল জাব্বার আলী জানান, জলাবদ্ধতার বিষয়টি এলাকাবাসী জানিয়েছেন। ব্রিজের মুখ খুলে দিলে কৃষকরা এ দুদর্শা থেকে রক্ষা পাবেন।

রায়গঞ্জের ইউএনও রাজিবুল আলম জানান,অবৈধভাবে ব্রিজের মুখ বন্ধ করা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ