বান্ধবীদের মন পেতে বুকে ব্লেড চালিয়ে নাম লিখতেন ‘ভিখারি’

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বান্ধবীদের মন পেতে বুকে ব্লেড চালিয়ে নাম লিখতেন ‘ভিখারি’

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২৩ ১৩ জুন ২০২১   আপডেট: ২০:২৮ ১৩ জুন ২০২১

চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং থানা এলাকার সন্ত্রাসী শাহেদ ওরফে ভিখারি গ্রেফতার

চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং থানা এলাকার সন্ত্রাসী শাহেদ ওরফে ভিখারি গ্রেফতার

করেছেন দুটি বিয়ে। রয়েছে একাধিক বান্ধবী। আর বান্ধবীদের বিশ্বস্ততা অর্জন করতে বুকে ব্লেড দিয়ে কেটে লিখেন তাদের নাম। বন্ধুত্ব হয়ে গেলে সেসব বান্ধবীদের দিয়ে বিভিন্ন মানুষকে ফেলেন প্রেমের ফাঁদে। এরপর সুযোগ বুঝে ঘরে ডেকে নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে আদায় করেন টাকা।

চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং থানা এলাকার ধূর্ত ও ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী শাহেদ ওরফে ভিখারিকে গ্রেফতারের পর এসব তথ্য জানিয়েছে পুলিশ। রোববার ভোরে আগ্রাবাদ পানওয়ালাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানায়, খুবই আর্থিক সঙ্কটের মধ্য দিয়ে কেটেছিল শাহেদের শৈশব। ফলে বন্ধুরা তাকে ভিখারি নামে ডাকতেন। আর এখন সেই বন্ধুদেরই লিডার তিনি। তার বেতনভুক্ত কয়েকজন কর্মচারী রয়েছেন। যাদের কাজ পুলিশ অভিযানে গেলে তাকে তথ্য দেয়া। এ কারণে তাকে ধরতেও বেশ বেগ পেতে হয় পুলিশের। 

ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে একটি এলজি, এক রাউন্ড কার্তুজ ও ৫০টি ইয়াবাসহ শাহেদকে গ্রেফতার করা হয়। শাহেদ পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। এলাকায় তার নিয়ন্ত্রিত একটি কিশোর গ্যাং রয়েছে। সেসব কিশোরদের দিয়ে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাতো সে।

ওসি আরো বলেন, দুই বিয়ের পাশাপাশি একাধিক বান্ধবী রয়েছে শাহেদের। বান্ধবীদের বিশ্বস্ততা অর্জন করতে প্রথমে বুকে ব্লেড দিয়ে কেটে তাদের নাম লিখতো। এরপর বন্ধুত্ব হয়ে গেলে সেসব বান্ধবীদের দিয়ে বিভিন্ন মানুষকে প্রেমের ফাঁদে ফেলতো। পরে কৌশলে ঘরে ডেকে নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা আদায় করতো। আগেও পাঁচবার গ্রেফতার হয়েছিল শাহেদ। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় আটটি মামলা রয়েছে। শাহেদ ও তার পলাতক তিন সহযোগীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে নতুন দুটি মামলা হয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে