সড়ক থাকতেও প্রাচীর টপকে চলে ৫ অবরুদ্ধ পরিবারের চলাচল

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৫ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ২১ ১৪২৮,   ২৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সড়ক থাকতেও প্রাচীর টপকে চলে ৫ অবরুদ্ধ পরিবারের চলাচল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৫২ ১২ জুন ২০২১  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আকচা ইউনিয়নে মাস্টার বাড়ি গ্রামে চলাচলের পথ বন্ধ করার অভিয়োগ উঠেছে প্রভাবশালী প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। এতে ৫ পরিবারের ৩০ জন সদস্য অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। প্রায় দেড় বছর ধরে মানবতর জীবন যাবন করছে তারা। 

কোনো প্রয়োজন হলে মই দিয়ে প্রাচীর টপকে বাড়ি থেকে বাইরে যেতে হয়। নয়তো দির্ঘ পথ ঘুরে ঝাড়, জঙ্গল, অন্যের ক্ষেত আঙিনা পাড় হয়ে যেতে হয়।  

ইউনিয়ন পরিষদ, থানা ও ইউএনওকে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোনো সুরাহা পাচ্ছেন না ভুক্তভোগী আনসারুল ইসলাম। লিখিত অভিযোগে তারা বলেন, ইসহাক আলী, এনায়েত হোসেন, ইউনুস আলী, ওয়াজেদ আলীসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা তাদের জমি দীর্ঘদিন ধরে জোর পূর্বক দখল করে রেখেছে। প্রতিবাদ করলে তাদের মারধর করে। এরপর নিজের জায়গা অন্য কাউকে ব্যবহার করতে না দেয়ার অজুহাতে আমাদের ও স্থানীয়দের চলাচলের দীর্ঘদিনের ব্যবহৃত কাঁচা সড়কটি বন্ধ করে দেয়। এরপর থেকে আমরা মানবতর জীবন যাপন করছি।

বাড়ির কেউ অসুস্থ কিংবা মারা গেলেও দেহ বের করার কোনো উপায় নেই। কৃষির ফসল ঘরে তুলতে পাড়ি না। তারা প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার, এলাকার গণ্যমান্য মান্য ব্যক্তিরা বিচার সালিশ মানে না।

এ বিষয়ে অভিযুক্তরা বলেন, আমরা আমাদের নিজেদের জমিতে বেড়া দিয়েছি। অন্যের জমিতে নয়। তাছাড়া এদিক দিয়ে কখনোই কোনো রাস্তা ছিলো না। যারা অভিযোগ করছে তারা মিথ্যে বলছে।

এ বিষয়ে আকচা ইউপির চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার রায় বলেন অভিযোগ পেয়ে আপোষের চেষ্টা করা হয়েছিল মিমাংসা হয় নাই। যেহেতু জমির ব্যাপার তাই আমরা তাদের আইনের আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দেই।  
 
অন্য দিকে ইউএনও জানান, বিষয়টির অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস