ধর্ষণের ভিডিও ফাঁসের হুমকি দিয়ে ভাবিকে চার বছর ধর্ষণ

ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ২০ ১৪২৮,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

ধর্ষণের ভিডিও ফাঁসের হুমকি দিয়ে ভাবিকে চার বছর ধর্ষণ

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:১৫ ১১ জুন ২০২১   আপডেট: ১৬:৪৬ ১১ জুন ২০২১

প্রতিবেশী ভাবিকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক মিঠুন চন্দ্র মণ্ডল

প্রতিবেশী ভাবিকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক মিঠুন চন্দ্র মণ্ডল

নওগাঁর মান্দায় ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ফাঁস করে দেয়ার হুমকি দিয়ে ও ফাঁকা স্ট্যাম্প আটকে রেখে চার বছর ধরে ভাবিকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে দেবর সম্পর্কের প্রতিবেশী মিঠুন চন্দ্র মণ্ডলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে তাকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত মিঠুন চন্দ্র মণ্ডল ওই উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়নের বলাক্ষেত্র গ্রামের মতিলাল মণ্ডলের ছেলে। বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।

আরো পড়ুন>>> নিজের বিয়ের জন্য সাজানো গেট দিয়েই বের হলো সুইটির লাশ

ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ জানান, প্রতিবেশী মিঠুন সম্পর্কে তার দেবর। সেই সূত্রে তার বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াত করত সে। চার বছর আগে একটি জীবন বীমা কোম্পানির কাগজপত্র তৈরির কথা বলে দুটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে তার স্বাক্ষর নেয় মিঠুন। এছারা ভালো সম্পর্কের সূত্র ধরে তাকে মাঝেমধ্যেই অনৈতিক প্রস্তাব দিত। এক পর্যায়ে ফাঁকা বাড়িতে কৌশলে তাকে ধর্ষণ ও সেই ভিডিও নিজের মোবাইলে ধারণ করে মিঠুন। সেই থেকে বিভিন্ন সময় ভিডিও ফাঁসের হুমকি ও ফাঁকা স্ট্যাম্প আটকে রেখে অসংখ্যবার তাকে ধর্ষণ করেছে সে। বৃহস্পতিবার সকালে স্ট্যাম্প ও ভিডিও ফেরত চাইতে গেলে তাকে মারধরও করে ধর্ষক মিঠুন। বর্তমানে ভুক্তভোগী নারী মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

আরো পড়ুন>>> ২০ দিনের পরিচয়ে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী সুজন

ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার স্ত্রী অস্বাভাবিক আচরণ করছিলেন। জানতে চাইলেও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে এড়িয়ে যেতেন। সম্প্রতি সব ঘটনা জানার পর ফাঁকা স্ট্যাম্প ও ভিডিও উদ্ধার করতে গেলে তার স্ত্রীকে মারধর করে মিঠুন।

আরো পড়ুন>>> গরুর রশি দিয়ে শিশুকে গাছে বেঁধে পেটাল মা-ছেলে

মান্দা থানার ওসি শাহিনুর রহমান জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযান চালিয়ে মিঠুন চন্দ্র মণ্ডলকে আটক করা হয়েছে। তার কাছ থেকে ফাঁকা স্ট্যাম্প ও ভিডিওসহ মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর