আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১,   আষাঢ় ২ ১৪২৮,   ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

বগুড়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:০৬ ১৮ মে ২০২১  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। এছাড়াও বাড়ি-ঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর লুটপাট করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার বাদিয়াচড়া গ্রামে জুলফিকার ও বাবু গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে ওই গ্রামে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে।

দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে জুলফিকার গ্রুপের রসূল, আব্দুর রহমান, আফজাল, রুপালী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্যদিকে বাবু গ্রুপের আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন খাদিজা, আমিনা, মতি বেগম, মজিবর রহমান। তারা সবাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্যরা স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

কথা হয় বাবুর সঙ্গে। তিনি বলেন, আমরা কিছু বুঝে উঠার আগেই জুলফিকার বাহিনীর লোকজন আমাদের বাড়ি-ঘরে হামলা চালায়। হামলাকারীরা বাড়ি থেকে গরু লুট করে নিয়ে গেছে। এছাড়া বাড়ির আশেপাশে থাকা সিএনজিচালিত অটোরিকশাও তারা ভাঙচুর করেছে।

তিনি বলেন, জুলফিকার বাহিনী আমার লোকজনের সাতটি বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। তাদের হামলায় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফারুক নামে আমার এক লোকের বাড়ি-ঘর।

জানতে চাইলে জুলফিকার আলী বলেন, প্রায় ৫ বছর আগে বাবু, জাহাঙ্গীর ও ফরিদকে আমরা সমাজচ্যুত করি। বাবু বাহিনী আমার লোকজনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে টাকা ও মোবাইল লুট করে নিয়ে গেছে। বাবুর সঙ্গে আমার কাছের কিছু লোক যোগ দিয়েছে।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার ওসি মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। কোনো পক্ষ থেকেই অভিযোগ পাওয়া যায়নি।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম