অচেতন স্বামীর পাশে স্ত্রীর লাশ, সব লুটে নিলেন ভাড়াটিয়া

ঢাকা, রোববার   ২০ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৭ ১৪২৮,   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

অচেতন স্বামীর পাশে স্ত্রীর লাশ, সব লুটে নিলেন ভাড়াটিয়া

নারায়ণগঞ্জ  প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০৪ ৯ মে ২০২১  

হোসনে আরা-ফাইল ফটো

হোসনে আরা-ফাইল ফটো

ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্ত্রী হোসনে আরাকে শ্বাসরোধ করে ঘরে থাকা টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ভাড়াটিয়ার বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার ঝাউচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ঝাউচর গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে ও মৃত হোসনে আরার ছেলে আল আমিন বলেন, রংপুর এলাকার হারুন অর রশিদ ও তার স্ত্রী সুলতানা স্থানীয় একটি কারখানায় চাকরি করেন।

পাচঁ মাস আগে আমাদের বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছে। ভাড়াটিয়া হারুন অর রশিদের সঙ্গে আমার বাবার সুম্পর্ক ছিল এবং বিশ্বস্ত হওয়ায় আমাদের বাসায় হারুন অর রশিদ ও তার স্ত্রী সব সময়ই যাওয়া আসা করতো।

আমার মা কোথায় টাকা ও স্বর্ণালংকার রাখতো সব কিছুই জানতো ভাড়াটিয়ার স্ত্রী সুলতানা। সেই সুযোগে শনিবার রাতে হারুন অর রশিদ আমার বাবা ও মায়ের সঙ্গে গল্প করে বাবাকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে। পরে আমার মাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘরে থাকা তিন ভরি স্বর্ণালংকার ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ