মালবাহী ট্রেনে যাত্রী, পাচার হয় মাদকও

ঢাকা, রোববার   ১৩ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

মালবাহী ট্রেনে যাত্রী, পাচার হয় মাদকও

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:১০ ৭ মে ২০২১  

মালবাহী ট্রেনে যাত্রী, পাচার হয় মাদকও

মালবাহী ট্রেনে যাত্রী, পাচার হয় মাদকও

করোনা পরিস্থিতির কারণে সারাদেশে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রেখেছে সরকার। জরুরি পণ্য পরিবহনে চলছে কিছু পার্সেল ট্রেন। এসব ট্রেনে মালামালের পাশাপাশি যাত্রী বহন করছে রেলওয়ের কিছু অসাধু কর্মচারী। একই সঙ্গে রেল নিরাপত্তা কর্মীদের যোগসাজশে পাচার করা হচ্ছে মাদক।

গত সোমবার রাতে র‌্যাবের অভিযানে একটি পার্সেল ট্রেন থেকে ২৮২ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। একই সঙ্গে আটক করা হয়েছে রেলওয়ের বিদ্যুৎ বিভাগের সদস্যসহ চারজনকে। তাদের সান্তাহার জিআলপি থানায় সোপর্দ করে র‍্যাব।

শুক্রবার আদমদীঘির সান্তাহার রেলস্টেশনে দেখা গেছে, চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী একটি পার্সেল ট্রেনের বগিতে ঠাসাটাসি করে বসে আছে শতাধিক যাত্রী। বেশিরভাগ যাত্রীর মুখেই ছিল না মাস্ক।

নাম না প্রকাশের শর্তে ট্রেনের পরিচালক (গার্ড) বলেন, বগিতে থাকা যাত্রীদের অধিকাংশ রেলওয়ে কর্মচারী বা তাদের স্বজন। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া যায় না। সব পার্সেল ট্রেনেরই একই অবস্থা।

সন্তাহার রেলস্টেশনের মাস্টার হাবিবুর রহমান বলেন, বারবার ট্রেনে উঠতে নিষেধ করেও যাত্রীদের থামানো যাচ্ছে না। মাদক পাচারের বিষয়টি তদারকির জন্য রেল পুলিশ ও নিরাপত্তাবাহিনী রয়েছে। তারা দায়িত্ব পালন করলে পার্সেল ট্রেনে যাত্রী ও মাদক পরিবহন বন্ধ করা সম্ভব হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর