মায়ের সামনে মেয়েকে একের পর এক আঘাত, মুহূর্তেই গেল প্রাণ

ঢাকা, রোববার   ০৯ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৬ ১৪২৮,   ২৬ রমজান ১৪৪২

মায়ের সামনে মেয়েকে একের পর এক আঘাত, মুহূর্তেই গেল প্রাণ

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:১৪ ১২ এপ্রিল ২০২১  

আহত মা (বামে) মেয়ের লাশ (ডানে)

আহত মা (বামে) মেয়ের লাশ (ডানে)

বরিশালের হিজলায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মায়ের সামনে মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিবেশী। রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার বড় জালিয়া ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রেহানা বেগম শ্রীপুর গ্রামের আমির হোসেনের স্ত্রী ও আব্দুর রব হাওলাদারের মেয়ে। তিনি দুই সন্তানের মা। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহতের মা নুর জাহান বেগম।

স্থানীয়রা জানায়, কয়েক বছর আগে রেহানার স্বামী আমির হোসেন মারা যান। এরপর বাবার বাড়িতে থাকতেন তিনি। তাদের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী তামিম মল্লিকের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। চার-পাঁচদিন আগে ওই জমিতে যান তামিম। এ সময় জমি থেকে তাকে বেরিয়ে যেতে বলেন রেহানা। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার সন্ধ্যার দিকে হঠাৎ ধারালো অস্ত্র নিয়ে রেহানাকে একের পর এক আঘাত করেন তামিম। এ সময় মেয়েকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে মা নুর জাহান বেগমকেও কুপিয়ে জখম করা হয়। একপর্যায়ে মা-মেয়ে দুজনই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এরপর পালিয়ে যান তামিম। পরে স্থানীয়রা তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে রেহানাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় নুর জাহানকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

হিজলা থানার ওসি অসীম কুমার সিকদার জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। হামলার পরপরই অভিযুক্ত তামিম মল্লিক পালিয়ে যান। তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর