বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন অফিসে হামলা, গ্রেফতার ২০

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৮,   ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন অফিসে হামলা, গ্রেফতার ২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২০ ১১ এপ্রিল ২০২১  

গ্রেফতার শামীম মিয়া

গ্রেফতার শামীম মিয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের হরতাল চলাকালে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশনের অফিসে হামলার উস্কানিদাতাসহ ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জড়িত আরো ২০জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে জেলার বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে জেলায় রোববার পর্যন্ত ৮২জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিকেলে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তি এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির অফিসে হামলার মূল উস্কানিদাতা গ্রেফতার শামীম মিয়া সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের চান্দিয়ারা গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে। গত শনিবার সন্ধ্যায় চান্দিরা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে জেলা ডিবি পুলিশ। 

ডিবির ওসি মো. লোকমান হোসেন জানান, গত ২৮ মার্চ হেফাজতের হরতাল চলাকালে গ্রেফতারকৃত শামীম মিয়া ফেসবুকে তার নিজস্ব আইডি থেকে সদর উপজেলার ঘাটুরার বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির অফিসে হামলা করার অনুরোধ জানান। এর পরই বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির অফিসে ব্যাপক হামলা চালানো হয়।

এ সময় হামলাকারীরা অফিসটিতে পেট্টোল বোমা নিক্ষেপ করে ও অফিসে থাকা ১০-১২টি গাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়। ফলে ওইদিন রাত থেকে পরদিন বিকেল পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে গ্যাস সংযোগ বন্ধ ছিল এবং সাধারণ মানুষ বাড়ি-ঘরে রান্নার কাজ নিয়ে পড়েন দুর্ভোগে পড়েন। ওই ঘটনায় বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির পক্ষ থেকে সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এসপি মোহাম্মদ আনিসুর রহমান বলেন, পুলিশ আসামিদের ভিডিও ফুটেজ ও ছবি দেখে তাদেরকে গ্রেফতার করছে। এছাড়া ও যাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে তাদেরকে গ্রেফতার করতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। 

তিনি বলেন, শনিবার রাত পর্যন্ত ৮২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাণ্ডবের ঘটনায় জেলার বিভিন্ন থানায়  ৪৯টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে সদর মডেল থানায় ৪৩টি, আশুগঞ্জ থানায় ৩টি, সরাইল থানায় ২টি এবং আখাউড়া রেলওয়ে থানায় ১টি। ৪৯ টি মামলায় এজাহারনামীয় ২৮৮ জনসহ অজ্ঞাতনামা ৩৫ হাজার লোককে আসামি করা হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে