হেফাজত কর্মীদের ছিনিয়ে নেয়া ২০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার, গ্রেফতার ৪

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮,   ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

হেফাজত কর্মীদের ছিনিয়ে নেয়া ২০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার, গ্রেফতার ৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:০৭ ১০ এপ্রিল ২০২১  

উদ্ধারকৃত গুলি ও গ্রেফতার দুই হেফাজত কর্মী

উদ্ধারকৃত গুলি ও গ্রেফতার দুই হেফাজত কর্মী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নন্দনপুরে হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবের সময় পুলিশের গুলি ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় দুই হেফাজত কর্মীসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ সময় ২০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সদর উপজেলার সুহিলপুরের ছমির আলীর ছেলে আরব আলী, রমিজ মিয়ার ছেলে মনির মিয়া। শুক্রবার রাতে সুহিলপুর বাজার থেকে তাদের গ্রেফতার করে। একই সময় সরাইল উপজেলার কুট্টাপাড়ার মনু মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ভাদুঘর গ্রামের মো. চাঁন মিয়ার ছেলে মো. সুমনকে গ্রেফতার করা হয়।

শনিবার সকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) রইছ উদ্দিন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৭ মার্চ সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার থেকে একজন আসামি নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফেরার পথে সদর উপজেলার নন্দনপুরে ১০০-১৫০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি পুলিশকে বাধা দেয়। ওই সময় হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশকে মারধর করে ও আসামিকে পালানোর সুযোগ দেয়। ঘটনার সময় মৌলভীবাজারের পুলিশ সদস্য তুহিন হাসানকে মারধর করে তার কাছ থেকে ২০ রাউন্ড গুলি ছিনিয়ে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে ওই ঘটনায় মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের নায়েক মো. মহিউদ্দিন মামলা করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই হেফাজত কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাদের দেয়া তথ্যে সদর উপজেলার সুহিলপুর বাজারের একটি মিষ্টির দোকানের টিনের চালের উপর থেকে ২০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবে জড়িত থাকার দায়ে জাকির হোসেন ও সুমন নামে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

জেলা পুলিশের তথ্য অনুয়ায়ী, হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় ৪৯টি মামলায় এখন পর্যন্ত ৫৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর