পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালানো রোহিঙ্গা নারীর পরিচয় মিলেছে

ঢাকা, সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৯ ১৪২৭,   ২৮ শা'বান ১৪৪২

পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পালানো রোহিঙ্গা নারীর পরিচয় মিলেছে

নোয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:০০ ৬ মার্চ ২০২১   আপডেট: ২২:০২ ৬ মার্চ ২০২১

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল- ফাইল ফটো

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল- ফাইল ফটো

কর্তব্যরত তিন পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পালিয়ে যাওয়ার ১০ ঘণ্টা পর রোহিঙ্গা নারী জেসমিনের খোঁজ মিলেছে।। তিনি ভাসানচরের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ক্লাস্টার নং ২৭, হাউজ-বি-থ্রি এর মো. সাইফুল ইসলামের স্ত্রী। 

শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গা নারীর খোঁজ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন অ্যাডিশনাল এসপি (প্রশাসন ও অপরাধ) দীপক জ্যোতি খীসা।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানান, একজন রোহিঙ্গা নারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে পালিয়ে গেছে বলে নিশ্চিত করেছেন।  

গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৩টার দিকে গলায় টিউমার অপারেশন করতে স্বামী সাইফুল ইসলাম ও শিশু সুমাইয়া আক্তারকে সঙ্গে নিয়ে রোহিঙ্গা নারী জেসমিন নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি হন। শনিবার ভোরে শিশু বাচ্চাকে প্রস্রাব করানোর কথা বলে বাথরুমে নিয়ে যান। এক পর্যায়ে বাথরুমে গিয়ে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে তার স্বামীকে রেখে শিশু বাচ্চাকে নিয়ে পালিয়ে যায় ওই রোহিঙ্গা নারী। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে