তালা না ভেঙেই বিদ্যালয়ের ১১ ল্যাপটপ চুরি

ঢাকা, শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৪ ১৪২৮,   ০৪ রমজান ১৪৪২

তালা না ভেঙেই বিদ্যালয়ের ১১ ল্যাপটপ চুরি

পঞ্চগড় প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৫৬ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ল্যাবে নেই ল্যাপটপ (ইনসেটে ল্যাবের দরজার তালা)

ল্যাবে নেই ল্যাপটপ (ইনসেটে ল্যাবের দরজার তালা)

পঞ্চগড় সদরে রাতের আঁধারে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১১টি ল্যাপটপ চুরি হয়েছে। উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের শেখের হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব থেকে এসব ল্যাপটপ চুরি হয়। শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটলেও শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনো আইনি ব্যবস্থা নেননি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানান, শনিবার সকালে বিদ্যালয় কক্ষের তালা খুলতে গিয়ে ল্যাবের দরজা খোলা দেখতে পান পিয়ন লুৎফর রহমান। ভেতরে কোনো ল্যাপটপ নেই দেখে বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিয়ার রহমানকে জানান তিনি। পরে বিষয়টি বিভিন্ন দফতরে জানান প্রধান শিক্ষক মতিয়ার রহমান।

তারা আরো জানান, চোর চক্র দরজার তালা না ভেঙে বৈদ্যুতিক শক্তি ব্যবহার করে তালার ওপরের পাতি কেটে ল্যাবে ঢোকে। এ সময় বিদ্যালয়ে থাকা একটি রাউটারসহ ১১টি ল্যাপটপ নিয়ে পালিয়ে যায়।

এদিকে, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম ও পঞ্চগড় সদর থানার ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন। ল্যাপটপ উদ্ধারে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

শেখের হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিয়ার রহমান বলেন, সকালে বিদ্যালয় কক্ষের দরজা খুলতে গিয়ে ল্যাবের দরজা খোলা দেখতে পান আমাদের পিয়ন লুৎফর রহমান। ভেতরে গিয়ে দেখতে পান সব ল্যাপটপ চুরি হয়েছে। প্রতি রাতে আমাদের নৈশপ্রহরী সাইফুল ইসলাম দায়িত্ব পালন করেন। ঘটনার রাতেও তিনি বিদ্যালয়েই ঘুমিয়েছেন।

পঞ্চগড় সদর থানার ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন বলেন, ওই বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব থেকে ১১টি ল্যাপটপ চুরির ঘটনায় আমরা তদন্ত করছি। এটি একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্রের কাজ বলে আমাদের ধারণা। আমরা চোর চক্রকে শনাক্ত করে গ্রেফতার করাসহ ল্যাপটপগুলো উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর