নিখোঁজের দুইদিন পর গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার 

ঢাকা, সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৯ ১৪২৭,   ২৮ শা'বান ১৪৪২

নিখোঁজের দুইদিন পর গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার 

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩৩ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

জীবননগরে নিখোঁজের দুইদিন পর তানজিলা খাতুন নামে এক গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার

জীবননগরে নিখোঁজের দুইদিন পর তানজিলা খাতুন নামে এক গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে নিখোঁজের দুইদিন পর তানজিলা খাতুন নামে এক গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বুধবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার উথলী মোল্লাবাড়ি গ্রামের একটি মাঠের ভেতর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতের শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত থাকায় তাকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

নিহত তানজিলা খাতুন সদর উপজেলার আকন্দবাড়ীয়া আবাসন প্রকল্পের বাসিন্দা আব্দুস সালামের স্ত্রী।

জানা যায়, তানজিলা ও আব্দুস সালাম আকন্দবাড়ীয়া আবাসন প্রকল্পে বসবাস করতেন। গত সোমবার আব্দুস সালাম স্ত্রী তানজিলাকে কাজ করার জন্য মাঠে ডেকে নিয়ে যায়। সেদিন থেকেই তারা দুইজনই নিখোঁজ ছিলেন। এর দুইদিন পর বুধবার রাতে মোল্লাবাড়ি গ্রামের একটি আখ ক্ষেতে বিবস্ত্র নারীর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় কৃষকরা।

পরে এলাকাবাসী শনাক্ত করেন উদ্ধার হওয়া বিবস্ত্র মরদেহ নিখোঁজ হওয়া তানজিলা খাতুনের।

জীবননগর থানার ওসি (তদন্ত) ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, সন্ধ্যায় খবর পেয়ে উথলী গ্রামের একটি মাঠ থেকে এক গৃহবধূর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা স্বামী আব্দুস সালাম টাকার জন্য নিজেই তার স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। স্বামী আব্দুস সালামও পলাতক রয়েছেন। তাকে ধরতে পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে