ছেলে-পুত্রবধূদের অবহেলায় ফাঁস দিলেন ৯২ বছর বয়সী মা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১২ ১৪২৭,   ১২ রজব ১৪৪২

ছেলে-পুত্রবধূদের অবহেলায় ফাঁস দিলেন ৯২ বছর বয়সী মা

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৫৬ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

যশোরের চৌগাছায় ছেলে-পুত্রবধূদের অবহেলায় অতিষ্ঠ হয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মা সালেহা খাতুন। সোমবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত সালেহা খাতুন ওই উপজেলার নারায়ণপুরের জাকির হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, মৃতের ঝুলন্ত লাশ নামিয়ে গোপনে তড়িঘড়ি করে দাফন করার চেষ্টা করে ছেলেরা। পরে খবর পেয়ে সন্ধ্যায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। মঙ্গলবার যশোর জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয় সালেহা খাতুনকে।

তার স্বজনরা জানান, সালেহা খাতুনের চার ছেলে ও পাঁচ মেয়ে। বড় ছেলে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তিনি যশোর জেলা শহরে নিজের বাড়িতে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকেন। মেঝ ও সেজো ছেলে গ্রামে কৃষিকাজ করেন। তাদের একজনের চৌগাছা উপজেলা শহরে বাড়ি রয়েছে। ছোট ছেলে প্রবাস থেকে এসে চৌগাছা শহরে মুদি ব্যবসা করেন। সম্প্রতি তিনি চৌগাছা শহরে একটি দোতলা বাড়ি করেছেন। এছাড়া গ্রামেও তার পাকা বাড়ি আছে।

তারা আরো জানান, কোনো ছেলে-মেয়ে সালেহা খাতুনের দেখাশোনা করতেন না। তিন ছেলের সংসারে পালাক্রমে থাকতেন তিনি, তবে ছেলে-পুত্রবধূরা ঠিকমতো তার যত্ন করতেন না। এমনকি টয়লেট নষ্ট হতে পারে বলে বাড়ির পাকা টয়লেটেও তাকে যেতে দেয়া হতো না। আবার ছেলে শহরে যাবে কিন্তু মাকে নিয়ে যাবে না। এ নিয়ে সম্প্রতি ছেলে-পুত্রবধূর সঙ্গে সালেহা খাতুনের মনোমালিন্য হয়। ছেলে-মেয়ে ও পুত্রবধূদের অবহেলায় অতিষ্ঠ হয়ে সোমবার বিকেলে ছোট ছেলের মোটরসাইকেল রাখার ঘরে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ জানান, লাশের ময়নাতদন্ত হয়েছে তবে রিপোর্ট আসেনি। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর