চট্টগ্রামের নগরপিতা রেজাউল

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৯ ১৪২৭,   ১৯ রজব ১৪৪২

চট্টগ্রামের নগরপিতা রেজাউল

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:০৭ ২৮ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২১:১১ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

এম রেজাউল করিম চৌধুরী

এম রেজাউল করিম চৌধুরী

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বির সঙ্গে ৩ লাখের বেশি ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হলেন তিনি।

বুধবার দিবাগত রাত ১টা ৩৫ মিনিটে নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামস্থ জিমনেশিয়াম হলে নির্বাচন কমিশনের অস্থায়ী নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।

তিনি জানান, নগরীর ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন ভোটারের মধ্যে নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন ৪ লাখ ৩৬ হাজার ৫৪৩ জন। এর মধ্যে বাতিল হয়েছে ১ হাজার ৫৩ ভোট। সব মিলিয়ে ভোটের শতকরা হার ২২ দশমিক ৫২ শতাংশ।

৭৩৫টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত করা হয় দুটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ। বাকি ৭৩৩টি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে এম রেজাউল করিম চৌধুরী পেয়েছেন ৩ লাখ ৬৯ হাজার ২৪৮ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডা. শাহাদাত হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪৮৯ ভোট।

অন্যান্য মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে হাতপাখা প্রতীকে মো. জান্নাতুল ইসলাম ৪ হাজার ৯৮০, আম প্রতীকে আবুল মনজুর ৪ হাজার ৬৫৩, মোমবাতি প্রতীকে এমএ মতিন ২ হাজার ১২৬, চেয়ার প্রতীকে মুহাম্মদ ওয়াহেদ মুরাদ ১ হাজার ১০৯ এবং হাতি প্রতীকে খোকন চৌধুরী ৮৮৫ ভোট পেয়েছেন।

সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪১টি ওয়ার্ডের মধ্যে অনুষ্ঠিত ৩৯টি ওয়ার্ডেই জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা। এর মধ্যে নিজ দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ভোটে জিতেছেন ৭ বিদ্রোহী।

এছাড়া বাকি দুটি ওয়ার্ডের একটিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত আরো এক প্রার্থী। কাউন্সিলর প্রার্থীর মৃত্যুতে স্থগিত অপর ওয়ার্ডটির কাউন্সিলর পদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি।

এদিকে, সাধারণ কাউন্সিলরের মতো সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদেও সবকটি ওয়ার্ডে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত নারী প্রার্থীরা। এখানেও নিজ দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ভোটে জিতেছেন এক বিদ্রোহী প্রার্থী। জয়ী হয়েছেন এক স্বতন্ত্র প্রার্থীও।

বুধবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৭২ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৫৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এআর/জেডএম