চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যু

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৯ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ২৪ ১৪২৭,   ২৪ রজব ১৪৪২

চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:০২ ২৮ জানুয়ারি ২০২১  

বিক্ষোভ করেন নার্সরা

বিক্ষোভ করেন নার্সরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় এক নার্সের বাবার মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগে ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ করেছে হাসপাতালের অন্যান্য নার্সরা।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে বিক্ষোভ করেন তারা। বিক্ষোভের কারণে প্রায় আধা ঘণ্টা জরুরি বিভাগে চিকিৎসা সেবা বন্ধ থাকে। এ সময় বিক্ষোভকারীরা জরুরি বিভাগের চিকিৎসককে অবরুদ্ধ করে রাখেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যায় হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারের সিনিয়র স্টাফ নার্স রাজিবের বাবা বুলবুল অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়ার পর রাজিবের অসুস্থ বাবার কাছে যাননি চিকিৎসক সফিউল্লাহ আরাফাত। এর প্রায় ২০ মিনিট পর অসুস্থ বুলবুলকে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে যেতে বলেন তিনি। সেখানে যাওয়ার পর নার্স রাজিবের বাবা মারা যান।

এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ওই হাসপাতালের অন্যান্য নার্সরা বিক্ষোভ করেন। এ সময় বন্ধ হয়ে যায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা সেবা। বিক্ষোভে অংশ নেন স্বাধীনতা নার্স পরিষদের সহ-সভাপতি নাসিমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌসী বেগমসহ ৩৫-৪০ জন নার্স।

এ বিষয়ে স্বাধীনতা নার্স পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স ফেরদৌসী বেগম বলেন, যেখানে আমরা নার্সরা প্রায় ২৪ ঘণ্টা রোগীদের সেবা দিচ্ছি, সেখানে আমাদের পরিবারের সদস্যরা বিনা চিকিৎসায় কেন মারা যাবেন? এ চিকিৎসায় অবহেলার জন্য চিকিৎসক সফিউল্লাহ আরাফাতের বিচার চাই।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক শওকত হোসেন বলেন, এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক সফিউল্লাহ আরাফাত বলেন, আমি এ বিষয়ে এখনই কিছু বলতে পারব না। জরুরি বিভাগের সব চিকিৎসক আলোচনা করে আপনাদের বিস্তারিত জানানো হবে।

সদর মডেল থানার ওসি আব্দুর রহিম বলেন, এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর