প্রতিবন্ধীদের ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ৩ ইউপি সদস্য বরখাস্ত

ঢাকা, শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭,   ১৪ রজব ১৪৪২

প্রতিবন্ধীদের ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ৩ ইউপি সদস্য বরখাস্ত

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৩৬ ২৬ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ০২:৫৬ ২৬ জানুয়ারি ২০২১

ভাতার টাকা আত্মসাৎ করায় ৩ ইউপি সদস্য বরখাস্ত (ছবি: সংগৃহীত)

ভাতার টাকা আত্মসাৎ করায় ৩ ইউপি সদস্য বরখাস্ত (ছবি: সংগৃহীত)

প্রতিবন্ধীদের ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নের ৩ ইউপি সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। 

সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফুজ্জামান ভূঁইয়া। 

বরখাস্ত হওয়া ৩ সদস্য নাওডোবা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য শাহিন ফকির, ১,২,৩ নং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সালমা আক্তার ও ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মনোয়ারা বেগম মনিকে ইউনিয়নের সব কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. আবুজাফর রিপন স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিবন্ধী ভাতার ২১ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার(ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ধারা ৩৪(১) অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। 

উল্লেখ্য যে, ২০২০ সালের  অক্টোবর মাসে ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে নাওডোবা ইউনিয়নের (৮ জন) প্রতিবন্ধীদের ভাতা প্রদানে এই অনিয়ম ও টাকা আত্মসাতের অভিযোগ নিয়ে কিছু গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার করা হয়। এরপরই বিষয়টি নজরে এলে তদন্ত কমিটি গঠন করে তদন্ত শুরু করে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন। তদন্তে অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা মেলায় বিষয়টি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবের বরাবর তদন্ত রিপোর্ট পাঠানো হলে তাদের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম