দাদার কোল থেকে খেজুরের গরম রসে পড়ে নাতির মৃত্যু

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭,   ১৭ রজব ১৪৪২

দাদার কোল থেকে খেজুরের গরম রসে পড়ে নাতির মৃত্যু

ফেনী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৬ ২৪ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৪:৫৯ ২৪ জানুয়ারি ২০২১

খেজুরের গরম রস (ফাইল ছবি)

খেজুরের গরম রস (ফাইল ছবি)

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় খেজুরের গরম রসে ঝলসে যাওয়া সাত মাস বয়সী মোহন নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার দাদা। শনিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়।

মৃত শিশু মোহন ওই গ্রামের কৃষক মো. মাসুদের ছেলে। শিশুর বাবা মো. মাসুদ ও ফুফা মো. লিটন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, সকাল ৭টা থেকে উপজেলার দক্ষিণ চরদরবেশ গ্রামের নামারচর (কোম্পানী বাজার) এলাকার বিভিন্ন গাছিদের কাছ থেকে পাটালি গুড় তৈরির জন্য রস সংগ্রহ করেন আবুল হোসেন নামে এক বৃদ্ধ। সকাল ৭টার দিকে রস বাড়িতে আনার পর বড় টিনের পাত্রে (ডাবল টিনে) ঢেলে গরম করে গুড় তৈরি করছিলেন আবুল হোসেনের স্ত্রী।

এ সময় আবুল হোসেন তার ছেলে মো. মাসুদের সাত মাস বয়সী শিশু মোহনকে কোলে নিয়ে চুলার পাশে দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন। হঠাৎ করে আবুল হোসেন মাথা ঘুরে কোলে থাকা নাতিসহ গরম রসের পাত্রের এক কোনে পড়ে যান। এতে দাদা-নাতি দুজনেই গরমে রসে ঝলসে যান। বাড়ির লোকজন দুজনকে উদ্ধার করে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

সেখানে বৃদ্ধ আবুল হোসেনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। শিশু মোহনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে রাত ১১টার দিকে শিশুটি মারা যায়।

সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. সাদেকুল করিম বলেন, গরম রসে শিশু মোহনের মাথাসহ শরীরের ৩৫ শতাংশ এবং আবুল হোসেনের দুই হাতসহ শরীরের ১০ শতাংশ ঝলসে গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম