বিবাহিতদের নিয়ে ছাত্রদলের কমিটি, গণপদত্যাগ

ঢাকা, শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭,   ১৪ রজব ১৪৪২

বিবাহিতদের নিয়ে ছাত্রদলের কমিটি, গণপদত্যাগ

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪৮ ২২ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৩:৪৬ ২২ জানুয়ারি ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সাংগঠনিকভাবে দল চাঙা করতে সম্প্রতি বরিশালে ছাত্রদলের ৭১টি ইউনিটে কমিটি ঘোষণা করা হয়। নগরী ও জেলার ১০ উপজেলার এসব ইউনিটে অছাত্র, বিবাহিত, মানসিক প্রতিবন্ধী ও মাদক ব্যবসায়ীদের ঠাঁই দেয়ার অভিযোগ পদবঞ্চিত নেতাকর্মীদের। ফলে অনেকেই পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

এমন গণপদত্যাগের ঘোষণা বরিশালে বিএনপির রাজনীতিতে অশনি সংকেত হিসেবে দেখছেন কেউ কেউ। তাদের মতে, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের বিভাগীয় টিমের হস্তক্ষেপে বরিশাল মহানগর ও জেলা কমিটিকে পাশ কাটিয়ে এসব কমিটি গঠন করা হয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে কমিটি ঘোষণাকারী বরিশাল বিভাগীয় টিমের প্রধান ও কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান বাপ্পী বলেন, যাদের আশা পূরণ হয়নি, তাদের মধ্যে ক্ষোভ থাকতেই পারে।

গত ৭ জানুয়ারি রাতে বরিশাল মহানগর ছাত্রদলের আওতাধীন নয়টি কলেজ ও ২৬টি ওয়ার্ড এবং জেলা ছাত্রদলের আওতাধীন ১০টি উপজেলা, সাতটি পৌরসভা ও ১৯টি কলেজে কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি ঘোষণার পর ওইদিন রাতে ও পরদিন গণপদত্যাগের ঘোষণা দেয় অনেকগুলো ইউনিট।

সদ্য ঘোষিত সরকারি বিএম কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. মাজহারুল ইসলাম বাবু নিয়মিত ছাত্র নন বলে অভিযোগ করেছেন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. ইলিয়াছ তালুকদার।

তিনি বলেন, নতুন কমিটিতে যোগ্যদের মূল্যায়ন করা হয়নি। বাবুকে বিএম কলেজ ছাত্রদলের রাজনীতিতে কখনোই দেখা যায়নি। তাই আমরা পদত্যাগের ঘোষণা দেই।

বরিশাল সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নবগঠিত কমিটির আহ্বায়ক ফয়সালুর রহমান ইমন খান সেখানকার ছাত্র নন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ কমিটির ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক জোবায়ের হোসেন জুয়েল বলেন, ২১ সদস্যের কমিটির আমরা ১০ জনই পদত্যাগ করেছি।

এছাড়া বরিশাল সরকারি কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক করা হয় রফিকুল ইসলাম টিপুকে। তিনি চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী বলে অভিযোগ পদবঞ্চিত নেতাকর্মীদের।

জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল রাঢ়ী বলেন, অছাত্র, বিবাহিত, মাদক মামলার আসামিরাই নতুন কমিটিতে ঠাঁই পেয়েছেন। আব্দুল কাদেরকে সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক করা হয়েছে। তাকে সদর উপজেলায় গত ১০ বছরেও সম্পৃক্ত দেখা যায়নি। আগৈলঝাড়া উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক হয়েছেন মাদক মামলার আসামি মহিদুল। এ উপজেলার ১৩ জন নেতা গত শুক্রবার পদত্যাগ করেছেন।

চারবারের চেষ্টায় এসএসসি পাস করেছেন এমন কর্মী সাহাদাত হোসেন সোহাগকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে। হিজলা উপজেলা কমিটিতে সমাজসেবা অধিদফতর থেকে মানসিক প্রতিবন্ধী হিসেবে ভাতা পাওয়া সাইদুর রহমান সোহাগকে করা হয়েছে সদস্য সচিব। মুলাদী উপজেলা কমিটিতে ছাত্রত্ব না থাকা মহিউদ্দিন ঢালীকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এতে নবগঠিত কমিটিতে পদ নিয়ে বাণিজ্য স্পষ্ট হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এইচএন