পাওনা টাকা চাওয়ায় মেয়েকে দিয়ে ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

ঢাকা, বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭,   ১৮ রজব ১৪৪২

পাওনা টাকা চাওয়ায় মেয়েকে দিয়ে ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

মাদারীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:১০ ১৮ জানুয়ারি ২০২১  

সংবাদ সম্মেনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করছেন ব্যবসায়ী দ্বীন ইসলাম

সংবাদ সম্মেনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করছেন ব্যবসায়ী দ্বীন ইসলাম

মাদারীপুর সদর উপজেলায় এক নারীর বিরুদ্ধে পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় তার মেয়েকে দিয়ে এক ব্যবসায়ীর নামে ধর্ষণের মামলা করার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার পূর্ব রঘুরামপুর গ্রামের এ ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার মাদারীপুর সাংবাদিক সংগঠন মৈত্রী মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলন করেন দ্বীন ইসলাম নামে ওই ব্যবসায়ী। দ্বীন ইসলাম একই গ্রামের কালীতলা বাজার এলাকার প্রয়াত চাঁন মিয়া রাঢ়ীর ছেলে।

এ সময় লিখিত বক্তব্যে দ্বীন ইসলাম বলেন, আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ১৫ লাখ টাকার রড, ইট, বালু ও সিমেন্ট ক্রয় করে তার নিজ এবং মেয়ের বাড়িতে বিল্ডিং নির্মাণ করেন ওই নারী। এরপর টাকা পরিশোধের জন্য বারবার তাগাদা দেয়ার পর গত বছরের ৬ জুলাই ইসলামী ব্যাংকের একটি চেক দেন তিনি। কিন্তু ৯ সেপ্টেম্বর চেক জমা দিতে গেলে অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা না থাকায় চেক ডিজঅনার করা হয়। এরপর টাকা চেয়ে ওই বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর উকিল নোটিশ পাঠানোর পর সবশেষ ওই নারীর বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলাও করি। কিন্তু ১৩ নভেম্বর মেয়েকে দিয়ে উল্টো আমার নামে মিথ্যা ধর্ষণের মামলা করেন ওই নারী।

প্রকৃতপক্ষে এ অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। এ ছাড়া মেডিকেল রিপোর্টেও ফলাফল নেগেটিভ আসে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ