‘কথা বলতে পারা’ হারানো পাখি ফিরে পেতে থানায় দম্পতি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৯ ১৪২৭,   ১৯ রজব ১৪৪২

‘কথা বলতে পারা’ হারানো পাখি ফিরে পেতে থানায় দম্পতি

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৫৭ ১৮ জানুয়ারি ২০২১  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

‘কথা বলতে পারা’ হারিয়ে যাওয়া শখের গৃহপালিত পাখি ফিরে পেতে এবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ফয়সাল রাব্বী নামের এক যুবক। তিনি দেবহাটা উপজেলার রন্তেশ্বরপুর গ্রামের সাজেদ হোসেনের ছেলে। 

হারিয়ে যাওয়া গৃহপালিত অস্ট্রেলিয়ান ককাটেল জাতের পাখিটি ফিরে পেতে শনিবার স্ত্রী সাবিকুন নাহারকে সঙ্গে নিয়ে সাতক্ষীরা দেবহাটা থানায় এসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ফয়সাল রাব্বী। কথা বলতে সক্ষম পাখিটি এখন গাজীরহাট এলাকার মোটরভ্যান চালক বিল্লাল গাজীর বাড়িতে রয়েছে, অথচ ওই পাখির মালিক হওয়া সত্ত্বেও বিল্লাল পাখিটি ফেরত দিচ্ছে না বলে অভিযোগ ফয়সাল দম্পতির। 

ফয়সাল জানায়, গত বছরের ৬ জুন ঢাকা থেকে অস্ট্রেলিয়ান ককাটেল জাতের পাখির একটি বাচ্চা নিয়ে দেবহাটার বাড়িতে আসেন তিনি। পরবর্তীতে তিনি ও তার স্ত্রী সাবিকুন নাহার মিলে দীর্ঘদিন পাখিটিকে লালন পালন ও পরিচর্যা করে কথা বলতে শেখান। এরপর পাখিটিসহ তারা সস্ত্রীক শ্বশুর বাড়ি গোপাখালীতে অবস্থান করতে থাকেন। গত বছরের  অক্টোবরের ১০/১১ তারিখে পাখিটি গোপাখালী থেকে আচমকা উধাও হয়ে যায়। সেই থেকে পাখিটিকে খুঁজে ফিরছিলেন ফয়সাল দম্পতি। 

সম্প্রতি গাজীরহাট গ্রামের মোটরভ্যান চালক বিল্লালের বাড়িতে পাখিটির সন্ধান মিললেও পাখিটি ফয়সাল দম্পতিকে ফিরিয়ে দিতে নারাজ বিল্লাল। তাই বাধ্য হয়ে শখের পোষা পাখিটি ফিরে পেতে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন ফয়সাল রাব্বী।

এ বিষয়ে দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার জানান, অভিযােগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে। তিনি যদি পাখিটির প্রকৃত মালিক হন তবে তার কাছে পাঠিটি ফিরিয়ে দেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে