নৈতিক-মূল্যবোধের শিক্ষা না থাকলে সব শিক্ষাই অর্থহীন: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

ঢাকা, শুক্রবার   ২২ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৮ ১৪২৭,   ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নৈতিক-মূল্যবোধের শিক্ষা না থাকলে সব শিক্ষাই অর্থহীন: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:২৬ ১৩ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৮:৫০ ১৩ জানুয়ারি ২০২১

পিরোজপুরের নেছারাবাদে সোহাগদল গণমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

পিরোজপুরের নেছারাবাদে সোহাগদল গণমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

নৈতিকতা ও মূল্যবোধের শিক্ষা না থাকলে সব শিক্ষাই অর্থহীন হয়ে যায় বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বুধবার পিরোজপুরের নেছারাবাদে সোহাগদল গণমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

এ সময় মন্ত্রী দক্ষিণ-পূর্ব সোহাগদল কমিউনিটি ক্লিনিকের পুনর্নির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন।

প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, আমরা ভালো মানুষ হওয়ার রাস্তা থেকে ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছি। আমাদের সন্তানরা এখন সদা সত্য কথা বলা শেখে না। কারণ আদর্শলিপির শিক্ষা আমাদের সন্তানরা এখন পাচ্ছে না। শুধুমাত্র পুঁথিগত শিক্ষা নিলে হবে না। শিক্ষার্থীদের নৈতিকতা ও মূল্যবোধের শিক্ষা দিতে হবে। মনুষ্যত্বের কথা শেখাতে হবে। নৈতিকতা এবং মূল্যবোধের শিক্ষা নিতে হবে। যার নৈতিকতা ও মূল্যবোধের শিক্ষা থাকে না, তার সব শিক্ষাই অর্থহীন হয়ে যায়।

শিক্ষকতা চাকরি নয় বরং মহান পেশা উল্লেখ করে শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের মাদকের ভয়াবহতা সম্পর্কে শিক্ষা দিতে হবে। মেয়েদের সম্মান করা শেখাতে হবে। শিক্ষকদের মর্যাদা দেয়া শেখাতে হবে। সমাজ ব্যবস্থায় তারা যেন কখনও দুর্নীতিতে আকৃষ্ট না হয় সেই শিক্ষাও দিতে হবে। দুর্নীতিবাজদের থেকে দূরে থাকার বিষয়টি সন্তানদের শেখাতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের কথা, বঙ্গবন্ধুর কথা, স্বাধীনতার কথা, প্রগতির কথা আমাদের ছেলে-মেয়েদের শেখাতে হবে।

তিনি আরো বলেন, অন্ধকারের বাংলাদেশকে আলোকোজ্জ্বল করতে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা কাজ করছেন। তিনি শিক্ষা বিস্তারে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেন। তিনি দেশের প্রতিটি বিভাগে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় করছেন। প্রতিটি জেলায় মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। আমার স্বপ্ন ছিল, পিরোজপুরে বিশ্ববিদ্যালয় হবে। তিনি সেটাও অনুমোদন দিয়েছেন।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, গ্রামের মানুষের কাছে চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা ১৯৯৬ সালে কমিউনিটি ক্লিনিক শুরু করেছিলেন। এখানে বিনামূল্যে ঔষধ থাকছে। এভাবে আমরা মানুষের দরজায় চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে চাই। মানুষের দরজায় শিক্ষা পৌঁছে দিতে চাই।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের বয়স পঞ্চাশ বছর হয়ে যাচ্ছে। আমরা এখনো কেন পেছনে পড়ে থাকবো? কেন এতো অনিয়ম-দুর্নীতির কথা শুনতে হবে? কেন অস্বচ্ছতার কথা শুনতে হবে? খারাপ মানুষ যে দলেরই হোক তাদের পরিহার করতে হবে। শেখ হাসিনা বলেন, অনৈতিকতা ও দুর্নীতির সঙ্গে যে জড়িত আছে তার কোনো দল নাই। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সময় পিরোজপুরের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে মন্ত্রী সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

সোহাগদল গণমান মাধ্যমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পরিষদের সভাপতি মো. মুনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডা. হাসনাত ইউসুফ জাকি, পিরোজপুরের শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রতিভা সরকার ও স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক এমপি ও বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সাবেক সভাপতি মো. শাহ আলম, পিরোজপুরের সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ টি এম হোসনে আরা সুলতানা বকুল।

এছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/এইচএন