ব্যস্ত সড়কে প্রেমিককে কুপিয়ে হত্যার পর তরুণীর আত্মসমর্পণ

ঢাকা, শুক্রবার   ২২ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৮ ১৪২৭,   ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ব্যস্ত সড়কে প্রেমিককে কুপিয়ে হত্যার পর তরুণীর আত্মসমর্পণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৩০ ১৩ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৩:৩০ ১৩ জানুয়ারি ২০২১

ব্যস্ত সড়কে প্রেমিককে কুপিয়ে হত্যার পর তরুণীর আত্মসমর্পণ

ব্যস্ত সড়কে প্রেমিককে কুপিয়ে হত্যার পর তরুণীর আত্মসমর্পণ

বিয়েতে সায় না থাকায় ব্যস্ত সড়কে প্রেমিককে তলোয়ার দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করলেন প্রেমিকা। শুধু তাই নয় হত্যার পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণও করেন তিনি।

ইন্ডিয়া ট্যুডের প্রতিবেদন অনুসারে, সোমবার রাতে অন্ধ্রপ্রদেশের পশ্চিম গোদাবরী জেলায় ঘটেছে এই মর্মান্তিক ঘটনা। প্রেমিক ২২ বছরের তানাজি নাইডু বাইকে করে বাড়ি ফিরছিল। তখনই পাশের গ্রামের পবনী তার ওপরে হামলা করে তলোয়ার নিয়ে। শেষ পর্যন্ত তানাজিকে খুন করে সেখানেই দাঁড়িয়ে থাকে সে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে আত্মসমর্পণ করে।

কিন্তু কেন সে খুন করল তার প্রেমিককে? পুলিশের কাছে সে কথা জানাতে গিয়ে পবনী পরিষ্কার জানিয়েছে, সে অত্যন্ত বিরক্ত হয়ে উঠেছিল তানাজির ওপরে। তাই আর সহ্য করতে না পেরে খুনের সিদ্ধান্ত নেয়। 

পশ্চিম গোদাবরীর পুলিশের এসপি কে নারায়ণ নায়েক বলেন, ‘ওদের দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক ছিল স্কুলে পড়ার সময় থেকেই। কিন্তু সম্প্রতি ছেলেটি মেয়েটিকে এড়িয়ে চলছিল। বিয়ে করতেও রাজি ছিল না। উলটো টাকা চেয়ে বিরক্ত করছিল মেয়েটিকে। সব মিলিয়ে তাকে আর সহ্য হচ্ছিল না মেয়েটির। তাই শেষে ধৈর্য হারিয়ে খুনের পরিকল্পনা করে অভিযুক্ত।’

তিনি আরও জানান, পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছায় তখন এক হাতে তলোয়ার, অন্য হাতে ফোন ধরে কারও সঙ্গে কথা বলছিল অভিযুক্ত। পালানোর কোনও চেষ্টাও করেনি সে। মৃত তরুণের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পেছনে আর কোনও উদ্দেশ্য ছিল কিনা তা জানতে পবনীকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস