লিজের জমি সাব-লিজ দেয়া যাবে না

ঢাকা, শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ২ ১৪২৭,   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

লিজের জমি সাব-লিজ দেয়া যাবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:৩১ ১২ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ০২:৩৮ ১২ জানুয়ারি ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সরকারি কোন জমি এখন থেকে লিজ নেয়ার পরে আর সাব-লিজ নেয়া যাবে না। সেই সঙ্গে জমির শ্রেণি, আকার, প্রকার কোনোরূপ পরিবর্তন করা যাবে না। 

গত ৩ ডিসেম্বর জারি করা অর্পিত সম্পত্তির অস্থায়ী ইজারার সালামির হার পুনর্নির্ধারণ বিষয়ক পরিপত্রের কিছু ক্ষেত্রে সংশোধন করে চলতি মাসের ৬ জানুয়ারি এমন অনুচ্ছেদ যুক্ত করে আরেকটি পরিপত্র জারি করে ভূমি মন্ত্রণালয়। এছাড়া ২০১৯ সালে জারি করা পরিপত্রে উল্লিখিত অনুচ্ছেদ-৫ প্রতিস্থাপনের কথাও বলা হয়েছে সংশোধনী পরিপত্রে। 

প্রতিস্থাপিত সংশোধীত অনুচ্ছেদটি হচ্ছে, অস্থায়ীভাবে ইজারাকৃত প্রত্যর্পণযোগ্য অর্পিত সম্পত্তি মেরামতের ক্ষেত্রে ইজারা গ্রহীতা জেলা প্রশাসক/উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের পূর্বানুমতিক্রমে অবকাঠামোর কোনোরূপ পরিবর্তন না করে অথবা কোনো নতুন স্থাপনা নির্মাণ না করে নিজ ব্যয়ে বর্তমান স্থাপনার প্রয়োজনীয় মেরামত কাজ করতে পারবেন। তবে মেরামত বাবদ সংশ্লিষ্ট সম্পত্তির বার্ষিক ইজারার টাকার সর্বোচ্চ ৫% ব্যয় করা যাবে।

আগের পরিপত্রের সঙ্গে দুটি নতুন অনুচ্ছেদ সংযুক্ত করার কথাও বলা হয়েছে সংশোধনীতে। অনুচ্ছেদগুলো হচ্ছে, ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপযুক্ত পরিপত্র মোতাবেক চালু করা অর্পিত বাড়ি ঘরের সালামি বর্গফুট নির্ধারণের হার বহাল থাকবে। তবে বাড়ি ঘরের অবস্থা ও অবস্থান বিবেচনা করে নির্ধারিত ভাড়ার সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ কম-বেশি করা যেতে পারে। 

এক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকের সুনির্দিষ্ট যৌক্তিকতা, ব্যাখ্যাসহ সুপারিশ বিভাগীয় কমিশনারের অনুমোদিত হতে হবে এবং ভূমি মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে হবে। খালি জমি ইজারা নিয়ে জেলা প্রশাসকের অনুমোদনক্রমে নিজ খরচে ঘর উঠালে সে ক্ষেত্রে ওই খালি জমির নির্ধারিত ইজারা মূল্যের সঙ্গে অবকাঠামোর জন্য নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত হিসেবে আরও ২০ শতাংশ ইজারা গ্রহীতাকে পরিশোধ করতে হবে।

সংশোধনীতে ২০১৯ সালে জারি করা পরিপত্রের অনুচ্ছেদ ৬, ৭ এবং ৮ যথারীতি বহাল থাকার কথা বলা হয়েছে।

লিজ-গ্রহীতা এবং জেলা প্রশাসকদের মতামতের ভিত্তিতে সালামির অর্থ আদায়যোগ্য এবং জনবান্ধব করার লক্ষ্যে ভূমি মন্ত্রণালয় অর্পিত সম্পত্তি বিষয়ে কতগুলো সিদ্ধান্ত নেয়। এর ভিত্তিতে ভূমি মন্ত্রণালয় গত ৩ ডিসেম্বর ‘অর্পিত সম্পত্তির অস্থায়ীভিত্তিতে ইজারার সালামির হার পুনর্নির্ধারণ’ বিষয়ক পরিপত্র জারি করে। জনস্বার্থে ওই পরিপত্রের কিছু সংশোধন করে গত ৬ জানুয়ারি ভূমি মন্ত্রণালয় ‘অর্পিত সম্পত্তির অস্থায়ী ইজারার সালামির হার পুনর্নির্ধারণে কতগুলো সংশোধন’ বিষয়ক সংশোধনী পরিপত্রটি জারি করে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস