কমবে ভোগান্তি, বাড়বে সেবার মান

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৬ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পঞ্চগড়ে করোনা র‌্যাপিড এন্টিজেন পরীক্ষা

কমবে ভোগান্তি, বাড়বে সেবার মান

পঞ্চগড় প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩৮ ৫ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ০০:১৪ ৬ ডিসেম্বর ২০২০

রোগীদের করোনা টেস্ট করা হয়

রোগীদের করোনা টেস্ট করা হয়

পঞ্চগড়ে দ্রুত সময়ে করোনা শনাক্তের জন্য র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট সেবা চালু হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের বাইরে অস্থায়ী ক্যাম্পে এ সেবা চালু করে স্বাস্থ্য বিভাগ। এর মাধ্যমে এ জেলার করোনা রোগীদের দুর্ভোগ অনেকটাই কমে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

প্রথম দিনে করোনা উপসর্গ নিয়ে আসা তিনজন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর ২৫-৩০ মিনিটের মধ্যেই তাদের ফলাফল দেয়া হয়। তিনজনের মধ্যে জেলা সদরের ইসলামবাগ এলাকার এক ব্যক্তির করোনা পজিটিভ আসে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের ল্যাবে করোনা পরীক্ষার জন্য ৫০০ কিট সরবরাহ করা হয়েছে। শুক্রবার বাদে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে ২টা পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ, পরীক্ষা ও ফলাফল দেয়া হবে।

প্রতিদিন ৮-১০ জনের করোনা পরীক্ষা করা যাবে। একজন মেডিকেল অফিসার ও দুজন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট এ সেবা দেবেন। শুধুমাত্র যাদের করোনার উপসর্গ রয়েছে তারাই ১০০ টাকার ফি দিয়ে এ পরীক্ষা করাতে পারবেন। পরীক্ষায় যাদের করোনা নেগেটিভ আসবে তাদের নমুনা দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হবে।

স্থানীয়রা জানায়, করোনা মহামারি শুরু হলে পঞ্চগড়ের সন্দেহভাজন রোগীদের প্রথমে নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর, পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সবশেষ দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হতো। ফলাফল পেতে কখনো কখনো ৮-১০ দিন লাগত। তাই পঞ্চগড়ের সচেতন মহলের দাবি ছিল জেলায় যেন করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট সেবা চালু হওয়ায় দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হলো। এতে সহজেই পঞ্চগড়ের মানুষ এখন করোনা পরীক্ষা করাতে পারবেন।

জেলা শহরের মসজিদপাড়া এলাকার সাইফুল ইসলাম রতন বলেন, করোনার রিপোর্ট পেতে দেরি হওয়ায় অনেকে পরীক্ষা করাতে চাইতেন না। কিন্তু পঞ্চগড়ে দ্রুত সময়ে করোনা শনাক্ত সেবা চালু হওয়ায় এখন সহজেই পরীক্ষা করাতে পারবো।

পঞ্চগড়ের ইসলামবাগ এলাকার মির্জা আব্দুল বাকী বলেন, কয়েকদিন থেকেই অসুস্থবোধ করছিলাম। করোনার কিছু উপসর্গও ছিল। পঞ্চগড়ে এন্টিজেন টেস্ট শুরু হওয়ার খবর শুনে পরীক্ষা করাতে আসি এবং আমার করোনা ধরা পড়ে।

পঞ্চগড়ের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. আফরোজা বেগম রীনা বলেন, র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে খুব দ্রুত আমরা করোনা শনাক্ত করতে পারব। যাদের উপসর্গ রয়েছে শুধুমাত্র তাদের পরীক্ষা করানো হবে। যারা পজিটিভ হবেন তাদের চিকিৎসা দেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এমকে