র‌্যাবের হাতে ধরা ‘ম্যাগনেটিক পিলার’ প্রতারক চক্রের সদস্য

ঢাকা, শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ২ ১৪২৭,   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

র‌্যাবের হাতে ধরা ‘ম্যাগনেটিক পিলার’ প্রতারক চক্রের সদস্য

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৫৫ ২ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:০৯ ৩ ডিসেম্বর ২০২০

আটক লিখন

আটক লিখন

পটুয়াখালীতে লিখন শিকদার নামে ‘ম্যাগনেটিক পিলার’ প্রতারক চক্রের সক্রিয় এক সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। তার কাছে থেকে পিতলের তৈরি একটি বোতল জব্দ করা হয়, যা তিনি প্রতারণার কাজে ব্যবহার করতেন।

মঙ্গলবার রাতে র‍্যাব-৮ পটুয়াখালী ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার জনাব মো. রবিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আটক লিখন পটুয়াখালীর গলাচিপা থানাধীন পানপট্টি গ্রামের মো. হালিম শিকদারের ছেলে।

র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার গলাচিপা থানাধীন উত্তর পানপট্টি এলাকা থেকে লিখন শিকদারকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লিখন ‘ম্যাগনেটিক পিলার’ প্রতারণায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। তার নামে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ (খ) ধারায় একটি মামলাও রয়েছে। আসামিকে গলাচিপা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

লিখন পটুয়াখালীতে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছিলেন। কথিত আছে ম্যাগনেটিক পিলার একটি অতি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন চুম্বক, যা তৈরি করা হয়েছে বৃটিশ আমলে। এই পিলারের গায়ে খোদাই করে লেখা আছে ইন্ডিয়া কোম্পানি ‘১৮১৮’। যার মূল্য কোটি টাকার ওপরে।  

তারা (প্রতারক চক্র) দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বড় ব্যবসায়ীদের কৌশলে নিজ এলাকায় নিয়ে আসেন। পরে হ্যান্ড গ্লাভস, চশমাসহ বিভিন্ন বেশ ধারণ করে আকর্ষণীয় সব কৌশলে ধাতব দ্রব্যের বোতলটি দেখিয়ে প্রমাণ করার চেষ্টা করেন এটি অনেক ক্ষমতা সম্পন্ন।  

জব্দ ধাতব দ্রব্যের তৈরি বোতলটি স্থানীয় স্বর্ণকারের মাধ্যমে র‌্যাব নিশ্চিত হয় যে, এটি পিতলের তৈরি এবং খুব বেশিদিন আগের নয়। এটি একটি ধাতব দ্রব্য মাত্র। যার কোনো অলৌকিক চুম্বকীয় ক্ষমতা নেই। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বড় বড় ব্যবসায়ীরা এই পিলার প্রতারণা চক্রের ফাঁদে পা দিয়ে লাখ লাখ টাকা হারিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম/এমআর