কাপড় ধরে টান দিলেন মা, ভেসে উঠল ছেলের মরদেহ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কাপড় ধরে টান দিলেন মা, ভেসে উঠল ছেলের মরদেহ

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৫৪ ২৭ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ০১:৫৫ ২৭ নভেম্বর ২০২০

মরদেহ (ফাইল ছবি)

মরদেহ (ফাইল ছবি)

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে নিখোঁজের একদিন পর শাহদাত হোসেন নামে এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে তার বাড়ির পুকুর থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে বুধবার সকাল থেকে সে নিখোঁজ ছিল।

মৃত শাহদাত সোনাইমুড়ী পৌরসভার কাঁঠালি গ্রামের কাদির মাস্টার বাড়ির মীর হোসেনের ছেলে এবং সোনাইমুড়ী সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা জায়, শাহাদাতকে বুধবার সকাল ৯টার দিকে মুঠোফোনে কল দিয়ে ডেকে নেয় একই বাড়ির জামালের ছেলে সুমন। এরপর থেকে শাহাদতকে খোঁজাখুঁজি করে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘরের পেছনের পুকুরে ঝোপের মধ্যে শাহাদাতের পরিধানের কাপড় ভাসতে দেখে ছোট বোন মারিয়া তার মাকে জানায়। পরে তার মা কাপড় ধরে টান দিতেই ভেসে উঠে শাহাদাতের মরদেহ।

নিহতের মা রোকসানা বেগম জানান, সুমন প্রায় সময় বহিরাগত ছেলেদের নিয়ে তার ঘরে মাদকসেবন করে আসছে। মঙ্গলবার রাতেও সে কয়েকজন বন্ধুদের নিয়ে ঘরে মাদক পার্টি দেয়। সুমনের খারাপ অভ্যাস জেনে ফেলেছে বলে সুমন তার ছেলেকে মেরে ফেলেছে। ঘটনার পর থেকে সুমন পলাতক রয়েছে। 

সোনাইমুড়ী থানার ওসি গিয়াস উদ্দিন জানান, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম