যে কারণে খুন হয় শিশু লামিয়া 

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

যে কারণে খুন হয় শিশু লামিয়া 

গাজীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৩২ ১৯ নভেম্বর ২০২০  

লামিয়া

লামিয়া

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে এক শিশুকে গলা কেটে হত্যা করেছে ওই বাড়ির এক ভাড়াটিয়া দম্পতি। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার সূত্রাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ওই দম্পতিকে আটক করেছে। তারা হলেন- বগুড়া সদর উপজেলার ফুলবাড়ী উত্তরপাড়া এলাকার সুমন মিয়া ও তার স্ত্রী মিলি বেগম।

নিহত লিমু আক্তার লামিয়া বাড়িওয়ালা সাহেব আলীর মেয়ে। 

কালিয়াকৈর থানার ওসি মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, তিন মাস আগে সুমন মিয়া ও তার স্ত্রী মিলি বাসা ভাড়া নিয়ে ওই বাড়িতে ওঠেন। পাঁচ হাজার টাকা ভাড়া বকেয়া ছিল। এ টাকার জন্য বাড়িওয়ালার স্ত্রী চাপ দিলে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সুমন ও মিলি মঙ্গলবার রাতে বাড়ির পাশের একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে লামিয়াকে গলা কেটে হত্যা করে। পরে লাশ পাশের খালের পানিতে ফেলে দেয়।

আরো পড়ুন: শিশুকে খালে ডুবিয়ে লাশের উপর দাঁড়িয়ে রইল খুনি

 

ওসি আরো জানান, লামিয়া নিখোঁজের বিষয়টি কালিয়াকৈর থানায় জানিয়ে খোঁজাখুঁজি করেন স্বজনরা। এ সময় সুমন পানির নিচে লামিয়ার লাশের ওপর দাঁড়িয়ে অন্যদের বিভিন্ন দিকে খোঁজার পরামর্শ দেয়। এক পর্যায়ে সন্দেহ হলে সুমনের কাছে গিয়ে তার পায়ের নিচ থেকে মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ এসে সুমন ও মিলিকে ধরে থানায় নিয়ে যায়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা শিশুটিকে হত্যার কথা স্বীকার করে।

সুমন ও মিলি জানায়, বাসা ভাড়া নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে তারা লামিয়াকে হত্যা করেছেন।

ওসি বলেন, লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস