অগ্নিদুর্ঘটনার হুমকির মুখে পিরোজপুর বিসিক শিল্পনগরী

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

অগ্নিদুর্ঘটনার হুমকির মুখে পিরোজপুর বিসিক শিল্পনগরী

পিরোজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৮:৪৮ ১৭ নভেম্বর ২০২০  

পিরোজপুর বিসিক শিল্পনগরী-ফাইল ফটো

পিরোজপুর বিসিক শিল্পনগরী-ফাইল ফটো

পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) উপজেলার সন্ধ্যানদীর পশ্চিম পারে বিসিক শিল্পনগর ও দুইটি বৃহৎ বন্দরসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন স্থাপনা অগ্নিদুর্ঘটনার হুমকির মুখে থাকলেও এখানে নেই কোনো নৌ-ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের বা অগ্নিনির্বাপণের ব্যবস্থা। এতে প্রায়ই ঘটছে অগ্নিকাণ্ড, আগুনে পুড়ছে কোটি কোটি টাকার সম্পদ। তাই জরুরিভাবে নৌ-ফায়ার স্টেশন স্থাপনের দাবি বিসিক শিল্প নগরীর ব্যবসায়ীদের। 

ব্যবসা-বাণিজ্য সম্মৃদ্ধ পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠি-নেছারাবাদ উপজেলাকে বিশাল সন্ধ্যা নদী প্রাকৃতিকভাবে দুই ভাগে ভাগ করেছে। ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে নদীর পূর্ব পাড়ে উপজেলা সদর এবং সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ে রয়েছে ৬টি ইউনিয়ন। ব্যবসা কেন্দ্র হিসেবে ইন্দুরহাট ও মিয়ারহাট বন্দরের পরিচিতি রয়েছে দেশব্যাপী।   ইন্দুরহাট , মিয়ারহাটে গড়ে উঠেছে দুটি  বড় বন্দর। সেই সঙ্গে রয়েছে ১৯৬১ সালের পুরোনো বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন বিসিক শিল্প নগরী। এ ছাড়া ডুবি ,আলকিরহাট, করফা, দৈহারী, গনকপাড়া ,চিলতলা বাজারসহ আরো ৭-৮টি ছোট-বড় বাজার রয়েছে।  স্কুল-কলেজসহ, শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে এ পাড়ে।   

বিসিকের ব্যবসায়ীরা জানান, সন্ধ্যার নদীর পশ্চিম পাড়ে যে কোনো স্থানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলে পূর্ব পাড় থেকে  দমকল বাহিনীর সদস্যরা পার হয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পৌঁছাতে সব পুড়ে যায়। অতি সম্প্রতি অগ্নিকাণ্ডে কৌরিখাড়া বিসিক শিল্প নগরীর শারমিন রোপ ফ্যাক্টনি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এতে প্রায় ৩ কোটি টাকার উপরে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ৬-৭ মাস আগেও শিল্প নগরীর রয়েল ফার্নিচার কারখানা পুড়ে যায়। এখন সব সময় আগুন আতঙ্কের মধ্যে থাকেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা। তাই জরুরিভাবে নৌ-ফায়ার স্টেশন স্থাপনের দাবি বিসিক শিল্প নগরীর ব্যবসায়ীদের।

স্থানীয় সামাজিক আন্দোলনের নেতা মিঠুন হালদার জানান, ইন্দেরহাট- মিয়ারহাটের বিসিক শিল্প নগরীসহ বিভিন্ন স্থাপনা রক্ষার্থে নৌ-ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপন এখন সময়ের দাবি।

এদিকে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন বিসিকের ম্যানেজার মো. শাহিদুর রহমান বলেন, গত ১ বছরের মধ্যে বিসিক শিল্প নগরীতে ৬-৭ ছোট বড় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে যার ক্ষতির পরিমাণ কয়েক কোটি টাকা। নৌ-ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপন হলে এ ক্ষতি কমে আসবে এবং সরকারও ভালো রাজস্ব পাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ