স্কুলছাত্রীর পথ আটকে শ্লীলতাহানি, যুবক গ্রেফতার

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্কুলছাত্রীর পথ আটকে শ্লীলতাহানি, যুবক গ্রেফতার

পিরোজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২৮ ৭ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:৩০ ৭ নভেম্বর ২০২০

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে পিরোজপুরের ভাণ্ডরিয়ার জুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।  

জানা গেছে, ঘটনার দিন রাতেই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে পিরোজপুর জেল হাজতে পাঠানো হয়। গ্রেফতারকৃত যুবকের নাম ইসমাইল মাতুব্বর। সে ওই গ্রামের জাহাঙ্গীর মাতুব্ববের ছেলে।

থানা পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বাড়িতে মেহমান আসায় শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মেয়েটির মা তাকে স্থানীয় জুনিয়া বাজারে তার দাদার কাছে পাঠান। পরে দাদা একটি মুরগি কিনে দিয়ে মেয়েটিকে বাড়িতে যেতে বলেন।

মেয়েটি স্থানীয় আলমগীর আকনের সুপারী বাগানের সামনের সড়কে পৌঁছলে বখাটে ইসমাইল মাতুব্বর মেয়েটির পথ আটকে তার শ্লীলতাহানি করে। এসময় মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে ইসমাইল ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

পরে মেয়েটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে গিয়ে ঘটনাটি জানালে তার পরিবারের সদস্যরা তেলিখালী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দিকে রওনা দেন।

এসময় ইসমাইল তার স্বজনদের নিয়ে নির্যাতিত মেয়েটির পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলা চালান। এতে মেয়েটির চাচা মো. জসিম ও কামাল হোসেন গুরুতর আহত হন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাণ্ডরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. মেহেদি হাসান জানান, নির্যাতিত মেয়েটির মা বাদী হয়ে ইসমাইল মাতুব্বরসহ ১১ জনকে আসামি করে শুক্রবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ভাণ্ডরিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ এ মামলার প্রধান আসামি ইসমাইল মাতুব্বরকে গ্রেফতার করে শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে পিরোজপুর জেল হাজতে পাঠিয়েছে বলেও জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ