চলন্ত বাসে শিশুকে যৌন নিপীড়ন, ৯৯৯ এর সহায়তায় অভিযুক্ত আটক

ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৭,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

চলন্ত বাসে শিশুকে যৌন নিপীড়ন, ৯৯৯ এর সহায়তায় অভিযুক্ত আটক

নারায়ণগঞ্জ  প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৪:৪২ ৩০ অক্টোবর ২০২০  

৯৯৯ ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস

৯৯৯ ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস

চলন্ত বাসে নিজ শিশু কন্যাকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে একজনকে আটক করেছে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার পুলিশ। ৯৯৯-এ ওই মায়ের ফোনকলে অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় বাংলাদেশ পুলিশ পরিচালিত 'জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯'এ একজন কলার নারায়ণগঞ্জের মদনপুর থেকে একটি চলন্ত বাস থেকে ফোন করে জানান, তিনি তার দুই শিশু সন্তানসহ চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ থেকে পদ্মা এক্সপ্রেস বাসে করে ঢাকায় আসছিলেন। তিনি তার ছেলে সন্তানসহ পাশাপাশি সিটে বসেছিলেন, তার ১১ বছর বয়সী শিশু কন্যা পেছনের সিটে বসেছিলো এবং ঘুমিয়ে পড়েছিল। তিনি নিজে তন্দ্রাচ্ছন্ন ছিলেন। পাশের আসনের এক যাত্রীর ডাকে তার ঘুম ভাঙে।

ওই যাত্রী তাকে জানান, বাসের একজন সহকারী তার ঘুমন্ত মেয়ের সিটের পাশে দাঁড়িয়ে হস্তমৈথুন করে তার মেয়ের জামা কাপড় নোংরা করে ফেলেছে এবং তিনি এহেন বিকৃত কর্মকাণ্ডের ছবি তুলে রেখেছেন।

৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে কলের মাধ্যমে বাসের চালকের সঙ্গে কথা বলে বাসটি সুবিধাজনক স্থানে থামাতে বলে এবং পুলিশ না যাওয়া পর্যন্ত বাসের দরজা বন্ধ রাখতে বলে। তখন তাদের অবস্থান কাঁচপুর সেতুর কাছাকাছি একটি ফিলিং স্টেশনে ছিল। সে অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও থানার ডিউটি অফিসারের সঙ্গে কলারের কথা বলিয়ে দেয়া হয়।

সংবাদ পেয়ে সোনারগাঁও থানা পুলিশের একটি দল অবিলম্বে ঘটনাস্থলে যায়। পরে সোনারগাঁও থানার এসআই শরিফুল ইসলাম ৯৯৯ কে ফোনে জানান তিনি বাসটি থেকে চালক সহকারী মিলন হোসেনকে যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক করে থানায় নিয়ে এসেছেন। এ বিষয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম