কোন্দল আর নেতার হাতে বন্দি রংপুর বিএনপি

ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৩ ১৪২৭,   ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

কোন্দল আর নেতার হাতে বন্দি রংপুর বিএনপি

রংপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০১ ২৯ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৮:২৯ ২৯ অক্টোবর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কোন্দল আর কেন্দ্রীয় কিছু নেতার হাতে বন্দি হয়ে পড়েছে রংপুর জেলা বিএনপি। জেলা ও মহানগরের দুই একজন নেতা দলীয় কর্মীদের খোঁজখবর নিলেও উপজেলা পর্যায়ে নেতারা কর্মীদের দেখেও না দেখার অভিনয় করেন। কর্মীদের অভিযোগ, বিএনপি করাই এখন তাদের কাছে অপরাধ।

২০১৭ সালে রংপুর জেলা ও মহানগরের কমিটি গঠন করা হয় দুই বছরের জন্য। কমিটির মেয়াদ দেড় বছর অতিবাহিত হওয়ার পরও নতুন করে কমিটি গঠনে নেই কোনো তৎপরতা।

অভিযোগ রয়েছে, কেন্দ্রীয় দুই নেতার কারণে রংপুর জেলা ও মহানগর বিএনপির কমিটি গঠন করা যাচ্ছে না। কমিটিতে যারা আছেন তাদের বেশিরভাগ এ দুই নেতার আশীর্বাদ পুষ্ট। দলীয় কর্মসূচিসহ সভা-সমাবেশে কর্মী সমর্থকদের জন্য টাকা খরচ করার ক্ষেত্রে নেতাদের কৃপণতায় দলটিকে রংপুরে আরো পিছিয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ কর্মীদের।

রাজনীতিবিমুখ হওয়া নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, রংপুর মহানগর ও জেলার কয়েকজন নেতা ক্ষমতা ধরে রাখার কারণে স্থানীয় বিএনপির রাজনীতি এখন হারিয়ে যেতে বসেছে।

রংপুর মহানগরের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপি নেতা হারুন জানান, নেতাদের সামনে পড়লে খোঁজ নেন। আমরা কীভাবে চলছি এর খবর কেউ নেন না। নেতাদের কারণে কর্মীরা হতাশ। আমরা তাদের কাছে টাকা চাই না। কর্মী সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব গড়ে তুলতে হবে। অন্যথায় বিএনপিকে আগামীতে খুঁজে পাওয়া যাবে না।

রংপুর মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু বলেন, প্রতিনিয়ত দলের নেতা-কর্মীদের খোঁজ-খবর নেয়া হয়। কেন্দ্রীয় নেতাদের বিষয়গুলো জানানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এইচএন