নাস্তা নিয়ে অপেক্ষায় মা, ফিরলো না আফরোজা

ঢাকা, শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

নাস্তা নিয়ে অপেক্ষায় মা, ফিরলো না আফরোজা

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪০ ২৫ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৭:৪৫ ২৫ অক্টোবর ২০২০

নিহত আফরোজা আক্তার

নিহত আফরোজা আক্তার

বাড়ির পাশেই একটি মাদরাসায় আরবি পড়তে যায় শিশু আফরোজা আক্তার। পড়া শেষে ফিরলেই মায়ের সঙ্গে আফরোজার নাস্তা খাওয়া হয়। কিন্তু রোববার আর নাস্তা খাওয়া হলো না আফরোজার।

বাড়ি ফেরার পথে সড়ক পার হওয়ার সময় অটোরিকশার ধাক্কায় আহত হয় শিশুটি। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথেই মারা যায় সে। ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার গাঙাইল ইউপির দরিল্লা গ্রামে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে। শিশুটির মৃত্যুতে এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।
 
সকাল ৮টার দিকে নান্দাইল উপজেলার পুর্বদরিল্লা বাসস্ট্যান্ড বাজারে নান্দাইল-তাড়াইল আঞ্চলিক সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত আফরোজা আক্তার তাড়াইল উপজেলার ধলা গ্রামের ব্যবসায়ী আবুল ইসলামের একমাত্র মেয়ে। সে মায়ের সঙ্গে পূর্বতরিল্লা গ্রামে মামার বাড়িতে থাকতো। আফরোজা স্থানীয় পূর্বদরিল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।

শিশুটির মামা আবু বাক্কার জানায়, স্কুল বন্ধ থাকায় প্রতিদিন সকালে পূর্ব দরিল্লা বাসস্ট্যান্ড বাজারে বাইতুন নূর হাফিজিয়া ও ফোরকানিয়া মাদরাসায় কোরআন শিক্ষার ক্লাসে যেত আফরোজা। প্রতিষ্ঠানটি তার মামার বাড়ির দক্ষিণ পাশে অবস্থিত। সকালে কোরআন শিক্ষা শেষে সে রাস্তার উত্তর পাশে তার মামা আ. কাদিরের দোকানে যেতে চায়। এ সময় রাস্তা পারাপারের সময় তাড়াইল থেকে নান্দাইল চৌরাস্তাগামী যাত্রীবোঝাই একটি অটোরিকশা তাকে চাপা দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী পূর্বদরিল্লা বাজারের ব্যবসায়ী শাহজাহান মিয়া জানান, সড়ক পার হওয়ার সময় দ্রুতগামী অটোরিকশাটি আফরোজাকে চাপা দেয়। এতে সে মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পাওয়ায় সড়কেই লুটিয়ে পড়ে। অচেতন অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

অটোরিকশার চালক ও তাড়াইলের হাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেন জানান, যথাসাধ্য চেষ্টা করেও তিনি শিশুটিকে বাঁচাতে পারেননি।

নান্দাইল মডেল থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এ ঘটনায় শিশুটির পরিবার মামলা করতে রাজি হচ্ছে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম