আশুলিয়ায় মিললো মিনি ক্যাসিনো, প্রতিরাতে ১০-১৫ লাখ টাকার জুয়া

ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

আশুলিয়ায় মিললো মিনি ক্যাসিনো, প্রতিরাতে ১০-১৫ লাখ টাকার জুয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৪৪ ২৫ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৩:৪৭ ২৫ অক্টোবর ২০২০

আশুলিয়ার মিনি ক্যাসিনোর বোর্ড। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আশুলিয়ার মিনি ক্যাসিনোর বোর্ড। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকার আশুলিয়ায় একটি মিনি ক্যাসিনো থেকে ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ এর একটি দল। র‌্যাবের ভাষ্য, এই ক্যাসিনোতে প্রতিরাতে ১০-১৫ লাখ টাকার জুয়া খেলা হতো। 

শনিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত আশুলিয়া থানার কাইচাবাড়ি এলাকায় জুয়ার আসর থেকে মাদকসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিছুর রহমানের উপস্থিতিতে এবং সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. সাজেদুল ইসলাম সজলের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।

রোববার দুপুরে মিরপুর পাইকপাড়ায় র‌্যাব-৪ এর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোজাম্মেল হক।

তিনি জানান, অভিযানকালে মিনি ক্যাসিনো জুয়ার আসর হতে প্লেয়িং কার্ডসহ একটি ক্যাসিনো বোর্ড, ১০০ পিস ইয়াবা, ১২ ক্যান বিদেশি বিয়ার, ২২টি মোবাইল এবং নগদ ৩৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন অতিরিক্ত ডিআইজি মোজাম্মেল হক। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গ্রেফতাররা হলেন- মো. বিল্লাল (৩৮), মো. জুয়েল (২৮), মইদুল ইসলাম (৩২), সবুজ মিয়া (২৮), মো. শরিফ (২৮), মো. লিটন (৪৫), রবিউল মোল্ল্যা (২৪), আবু তালেব (২০), দিয়াজুল ইসলাম (২০), মো. শিপন (২০), আব্দুল আলিম (৩৫), আজাদুল ইসলাম (৫০), সোহেল মোল্ল্যা (৩২), আসাদুল ইসলাম (৩০), মো. এখলাছ (৩৫), মঈন মিয়া (২৮), মাসুদ রানা (২০), হাবিবুর রহমান (৪৭), রুবেল মিয়া (৩৩), ফজলে রাব্বি (২২) ও রনি ভূঁইয়া (২৫)।

গ্রেফতাদের বরাত দিয়ে মোজাম্মেল হক জানান, আর এই জুয়ার আসরে নিম্নআয়ের মানুষ তাদের প্রতিদিনের আয় হারাতেন।  গত দেড় বছর ধরে এই মিনি ক্যাসিনো চলছিল। প্রতিরাতে ১০-১৫ লাখ টাকার জুয়া খেলা হতো। এ ক্যাসিনোতে জনপ্রতি সর্বনিম্ন ১০০ টাকা থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত খেলতেন। রাত যত গভীর হতো ক্যাসিনো তত জমে উঠত।

তিনি আরো বলেন, এই ক্যাসিনো ব্যবসার মালিকানায় রয়েছেন প্লাবন হোসাইন ও ওমর ফারুক নামে দুজন। যদিও তাদেরকে আমরা গ্রেফতার করা সম্ভব হইনি। তাদের গ্রেফতার করতে পারলে এই মিনি ক্যাসিনো সম্পর্কে আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আমরা জানতে পারব।

আশুলিয়ার মিনি ক্যাসিনোর বোর্ড কীভাবে আমদানি করা হয়েছে- জানতে চাইলে র‍্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, এই বোর্ড মালয়েশিয়া থেকে আমদানি করা হয়েছে। 

গ্রেফতাররা প্রাথমিকভাবে এই মিনি ক্যাসিনোয় খেলায় জড়িত থাকার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত জুয়া আইনে মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর