অন্তর্দ্বন্দ্বে জ্বলছে নবীনগর বিএনপি

ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

অন্তর্দ্বন্দ্বে জ্বলছে নবীনগর বিএনপি

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪০ ২৪ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ২১:১৯ ২৪ অক্টোবর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে অন্তর্দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা বিএনপিতে। মূলত একাধিক প্রার্থিতাকে ঘিরেই এ অন্তর্দ্বন্দ্ব শুরু হয়। নতুন করে এ দ্বন্দ্ব নেতা-কর্মীদের রেষারেষি থেকে প্রকাশ্য গ্রুপিংয়ে আসে গতকাল শুক্রবার।

এদিন একটি কর্মসূচিকে ঘিরে উপজেলা যুবদলের দুটি গ্রুপ প্রকাশ্যে আসে। একটি গ্রুপ কর্মসূচিতে অংশ নেয় নবীনগর সরকারি মহিলা কলেজ মাঠে আরেকটি গ্রুপ অংশ নেয় উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে। তবে শেষ মুহূর্তে উপজেলা যুবদলের পাল্টাপাল্টি অবস্থানের কারণে দু-পক্ষকেই সভা করতে দেয়নি পুলিশ। নবীনগর থানার ওসি (তদন্ত) রুহুল আমীন বলেন, দু-পক্ষই পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ছিল। তাই সভার অনুমতি দেয়া হয়নি।

নেতা-কর্মীরা জানান, যুবদলের ওই কর্মীসভায় যোগ দিতে ২২ অক্টোবর রাতে নবীনগর ডাকবাংলোতে আসেন কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন সিদ্দিক, চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভাগীয় সহ-সভাপতি আশিকুর রহমান ওয়াসিমসহ কেন্দ্রীয় এবং স্থানীয় নেতারা।

স্থানীয় যুবদলের একাধিক নেতা-কর্মী জানান, যুবদলের বিবদমান এই দুই গ্রুপের মধ্যে মফিজুর রহমান মুকুলের নেতৃত্বাধীন গ্রুপটিকে উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সফিকুল ইসলাম সফিক এবং আশরাফ হোসেন রাজুর নেতৃত্বাধীন গ্রুপটিকে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিছুর রহমান মঞ্জু নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

উপজেলা বিএনপির একাংশের নেতা সাইদুল হক সাঈদ বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত ছিল নিরপেক্ষ স্থানে কর্মীসভা হবে। এর আগেও ছাত্রদলের মিটিংসহ একাধিক মিটিং মহিলা কলেজ মাঠে হয়েছে। 

উপজেলা বিএনপির আরেক অংশের নেতা সাবেক এমপি আনোয়ার হোসেনের ছেলে কাজী নাজমুল হোসেন তাপস বলেন, নবীনগরে সাবেক এমপি কাজী মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ সবাই সহিংসতার রাজনীতি পরিহার করেছেন। এক গ্রুপের প্রোগ্রাম শেষ হওয়ার পর আরেক গ্রুপ প্রোগ্রাম করেছে। আমাদের কোনো আপত্তি ছিল না। কেন্দ্রীয় নেতা-কর্মীরা উপজেলায় আসলে আয়োজকদের উচিত সবার সঙ্গে কথা বলা। কিন্তু নবীনগরে তা হয়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এইচএন/জেএইচ