ঘূর্ণিঝড় মোকা‌বিলায় পটুয়াখালী‌তে হটলাইন চালু

ঢাকা, শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

ঘূর্ণিঝড় মোকা‌বিলায় পটুয়াখালী‌তে হটলাইন চালু

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:১৯ ২৩ অক্টোবর ২০২০  

ঘূর্ণিঝড় মোকা‌বিলায় পটুয়াখালী‌তে হটলাইন চালু

ঘূর্ণিঝড় মোকা‌বিলায় পটুয়াখালী‌তে হটলাইন চালু

ঘূর্ণিঝড় ‘গতি’ মোকাবিলায় পটুয়াখালীতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় জরুরি এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ডিসি মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, এরমধ্যে সব উপজেলায় প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলায় প্রায় ৯০০টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রয়েছে। রয়েছে পুলিশের বিশেষ হট লাইন ব্যবস্থা।

তিনি জানান, ঘূর্ণিঝড় ফনিতে কলাপাড়ায় একজন সিপিবি সদস্য মারা গেছেন। তার সুরক্ষা সামগ্রী সঠিক ছিলো না। তাই ঘূর্ণিঝড় গতি’তে যেসব স্বেচ্ছাসেবক কাজ করবেন তাদের নিজের সুরক্ষা সর্বোপরি নিশ্চিত করে কাজ করতে হবে।

তিনি আরো জানান, জেলায় ২৮৫ মেট্টিক টন চাল মজুদ রয়েছে। এছাড়া ৩ লাখ টাকা প্রস্তুত রয়েছে। এছাড়া ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে।

অ্যাডিশনাল এসপি হেডকোয়ার্টার শেখ বিলাল হোসেন জানান, সব তথ্য দিতে টোল ফ্রি ৯৯৯ কল দিতে হবে। এছাড়া পটুয়াখালী জেলার পুলিশ হটলাইন: ০১৩২০১৫৬০৯৯।

জেলা মৎস্য অফিসার মোল্লা এমদাদুল্লাহ্ বলেন, সমুদ্রে কোনো ট্রলার নেই। তবে নদীতে দুই একটি নৌকা থাকতে পারে। আজো অভিযান চলমান রয়েছে। এছাড়া মা‌ছের ঘেরে জাল দিয়ে রাখতে বলা হয়েছে।

সিভিল সার্জন ডা. মো. রেজাউর রহমান জানান, ১১০টি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রয়েছে। একই সঙ্গে পর্যাপ্ত ওষুধও মজুদ রয়েছে।

নদী বন্দর কর্মকর্তা খাজা সাদিকুর রহমান জানান, ৬৫ ফুটের নিচের নৌযান ও স্পিডবোট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকার ডাবল ডেকার লঞ্চ চলাচল করছে। ত‌বে বৃহস্প‌তিবার বিকেলে ৫টায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাঙ্গাবালী উপ‌জেলার কোড়ালিয়া ঘাট থেকে ১৮ জন নিয়ে একটি স্পিডবোট ছেড়ে আসলে মাঝ নদীতে ডুবে যায়। এতে ১৩ জন সাঁতরে কিনারায় উঠছে। ৫ জন নিখোঁজ রয়েছে। এতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় দোষী প্রতিষ্ঠানকে শাস্তির আওতায় আনা হবে। এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

স্বেচ্ছাসেবক মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, সিপিবি-৫টি উপজেলায় ৬ হাজর, ফায়ার সার্ভিস ৫০ জন, রেডক্রিসেন্ট ৫০ জন, যুব উন্নয়নের ৩০০ জন স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রয়েছেন।

ডিসি মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে জরুরি সভায় অন‌্যান‌্যদের ম‌ধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার, এডিসি (ভারপ্রাপ্ত সার্বিক) জি এম সরফরাজ, অ্যাডিশনাল এসপি (হেডকোয়ার্টার) শেখ বিল্লাল হোসেন, প্রেস ক্লাব সভাপতি কাজী ইকবাল, সিভিল সার্জন প্রতিনিধি ডা. মো. রেজাউর রহমান প্রমুখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম