একদিনে মিয়ানমার থেকে এসেছে ১৮ টন পেঁয়াজ

ঢাকা, বুধবার   ২৫ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১১ ১৪২৭,   ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

একদিনে মিয়ানমার থেকে এসেছে ১৮ টন পেঁয়াজ

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি    ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:৪০ ১৯ অক্টোবর ২০২০  

মিয়ানমার থেকে আসা পেঁয়াজ

মিয়ানমার থেকে আসা পেঁয়াজ

করোনার কারণে দীর্ঘ আড়াই মাস বন্ধের পর ১২ দফায় মিয়ানমার থেকে একদিনে ১৮ দশমিক ৭৫০মেট্রিক টন পেঁয়াজ কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে এসেছে।

সোমবার সকালে একটি ট্রলারে এসব পেঁয়াজ স্থলবন্দর ঘাটে এসে পৌঁছায়। এর আগে রোববার এ বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের ট্রলার এসেছিল। গত সেপ্টেম্বর ও চলতি মাসে মিয়ানমার থেকে নৌপথে ১২ দফায় ৫৮৫ দশমিক ৭৫মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ স্থলবন্দরের শুল্ক কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

তিনি বলেন, সোমবার একদিনে মোহাম্মদ সেলিম নামে একজন ব্যবসায়ী মিয়ানমার থেকে আমদানি করেছেন ১৮ দশমিক ৭৫০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। চাহিদা অনুযায়ী আমদানি বাড়াতে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের আরো উৎসাহিত করা হচ্ছে।

টেকনাফ শুল্ক বিভাগ জানায়, টেকনাফ শুল্ক বিভাগের তথ্য অনুযায়ী,মিয়ানমার থেকে এ বন্দর দিয়ে গত বছরের আগস্ট মাসে ৮৪ মেট্রিক টন, সেপ্টেম্বর মাসে তিন হাজার ৫৭৩ মেট্রিক টন, অক্টোবর মাসে ২০ হাজার ৮৪৩ মেট্রিক টন, নভেম্বর মাসে ২১ হাজার ৫৬০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। এছাড়া চলতি বছরের জুলাই মাসে এসেছিল ৮৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। সেপ্টেম্বর মাসে ৫৭ দশমিক ২০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ এসেছিল। সর্বশেষ রোববার ২২ মেট্রিক টন পেঁয়াজ এসেছে।         

টেকনাফ স্থলবন্দরের আমদানিকারক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, সোমবার সকালে একটি ট্রলারে ১৮ দশমিক ৭৫০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ এসেছে। আরো পেঁয়াজভর্তি ট্রলার আসার পথে রয়েছে।

স্থলবন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট টেকনাফ লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন বলেন, মিয়ানমার থেকে সোমবার সকালে একটি ট্রলারে ১৮ দশমিক ৭৫০মেট্রিক টন পেঁয়াজ এসেছে। আমদানিকৃত পেঁয়াজ দ্রুত সময়ে খালাস করা হয়। সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত দুইটি পেঁয়াজভর্তি ট্রাক দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরের উদ্দেশে স্থলবন্দর ছেড়ে গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ