মাটির নিচ দিয়ে যাবে সব তার, শুরু হচ্ছে কাজ: তাপস

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

মাটির নিচ দিয়ে যাবে সব তার, শুরু হচ্ছে কাজ: তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২০ ১৮ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ২০:০৯ ১৮ অক্টোবর ২০২০

ডিএসসিসির নগরভবনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে আইএসপিএবি ও কোয়াব নেতাদের বৈঠক - ডেইলি বাংলাদেশ

ডিএসসিসির নগরভবনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে আইএসপিএবি ও কোয়াব নেতাদের বৈঠক - ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ঝুলন্ত তার অপসারণের কাজ শুরু করেছে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি ও ডিএনসিসি)। এই বিষয়ে কেবল অপারেটররা আগামীকাল সোমবার থেকে মাটির নিচ দিয়ে ইন্টারনেট ও ক্যাবল টিভির তার নেয়ার কাজ শুরু করবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) এবং ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)।

এই শর্তে নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে আপাতত তার অপসারণের অভিযান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)।

রোববার ডিএসসিসির নগরভবনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে আইএসপিএবি ও কোয়াব নেতাদের বৈঠকে এ সমঝোতা হয়।

বৈঠকের পর এক ব্রিফিংয়ে মেয়র তাপস বলেন, দক্ষিণ সিটির পক্ষ থেকে রাস্তায় কোনো ঝুলন্ত তার আজকের পর কাটা হবে না। আমাদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, তারা নিজ খরচে মাটির নিচ দিয়ে তারের সংযোগ নেবেন এবং সঙ্গে সঙ্গে ওপরে ঝুলন্ত তার কেটে দেবেন। আর এটি আগামী নভেম্বরের মধ্যেই তারা শেষ করবেন বলে আমাদের কমিটমেন্ট দিয়েছেন। সে কারণেই আমরা তার কাটব না।

ঝুলন্ত তার সরিয়ে মাটির নিচ দিয়ে নিতে সিটি কর্পোরেশনের রাস্তা খোঁড়ারও অনুমতি দেয়া হয়েছে জানিয়ে মেয়র বলেন, সেই রাস্তা পরে সিটি কর্পোরেশনের খরচেই মেরামত করা হবে।

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ঝুলন্ত তারের জঞ্জাল সরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে যে অভিযান গত মাসে শুরু হয়েছিল, তা বন্ধের দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল আইএসপিএবি ও কোয়াব।

বিকল্প ব্যবস্থা না করে তার অপসারণের কাজ বন্ধ না করলে রোববার থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত সারাদেশে ইন্টারনেট ও ক্যাবল টিভি সেবা বন্ধের ঘোষণা ছিলো তাদের। সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমঝোতা হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে আইএসপিএবি ও কোয়াব।

আইএসপিএবি সভাপতি আবদুল হাকিম জানান, দক্ষিণের মেয়রের সঙ্গে বৈঠকে তার অপসারণ অভিযান স্থগিত হওয়ায় এখন আর তারা ধর্মঘটে যাচ্ছেন না।

কোয়াবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এসএম আনোয়ার পারভেজসহ দুই সংগঠনের জ্যেষ্ঠ নেতারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/আরএইচ/টিআরএইচ/টিএএস