কিছু খেলেই বুক জ্বালাপোড়া, ঘরোয়া উপায়ে মুক্তি পাবেন

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৫ ১৪২৭,   ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কিছু খেলেই বুক জ্বালাপোড়া, ঘরোয়া উপায়ে মুক্তি পাবেন

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৩১ ১৮ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১২:৩২ ১৮ অক্টোবর ২০২০

ছবি: গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় বুক জ্বালাপোড়া করে

ছবি: গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় বুক জ্বালাপোড়া করে

প্রায়ই খাওয়ার পর বুক গলা জ্বালাপোড়া করে। এসিডিটি বা গ্যাস্ট্রিকের জন্য এমনটা হয়ে থাকে। বেশি ঝাল, মশলা এবং ভাজাপোড়া খাবার খেলে এমনটা হয়ে থাকে। সঠিক চিকিৎসা বা ব্যবস্থা না নিলে চরম আকার ধারণ করে। 

এ থেকে দেখা দিতে পারে আলসার, কলোন ক্যান্সারসহ নানা সমস্যা। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে সবাই হাত বাড়ান ওষুধের দিকে। এতে সাময়িক মুক্তি মিললেও এই অভ্যাসটি আসলে ক্ষতিকর। তবে ঘরোয়া কিছু উপায়ে আপনি এ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। জেনে নিন সেগুলো-

> খাবার খাওয়ার পরপরই বুক জ্বালাপোড়া করতে থাকলে এক টুকরো আদা মুখে দিন। চিবিয়ে রসটুকু খেয়ে ফেলুন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যেই বুক জ্বালাভাব কমে গেছে। 

> দই খেতে পারেন। এতে থাকা ল্যাকটোব্যাকিলাস, অ্যাসিডোফিলাস ও বিফিডাসের মতো নানা ধরনের উপকারী ব্যাকটেরিয়া থাকে। এই সকল উপকারী ব্যাকটেরিয়া দ্রুত খাবার হজমে সাহায্য করে সেই সাথে খারাপ ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে। তাই দই খেলে হজম ভালো হয়, গ্যাস কমে। এই জন্যই খাবারের পর দই খাওয়া বেশ কার্যকর।

> শসাও এক্ষেত্রে খুব ভালো সমাধান। শসা পেট ঠান্ডা রাখতে অনেক বেশি কার্যকর। এতে রয়েছে ফ্লেভানয়েড ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান যা পেটে গ্যাসের উদ্রেক কমায়।

আরো পড়ুন: এসব লক্ষণই বলে দেবে আপনি ওসিডি তে আক্রান্ত কিনা

> কাঁচা বা পাকা পেঁপে খেতে পারেন। পেঁপেতে রয়েছে পেপেইন নামক এনজাইম যা হজমশক্তি বাড়ায়। তাই নিয়মিত পেঁপে খাওয়ার অভ্যাস করলে গ্যাসের সমস্যা কমে।

> আনারস খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা কমে যায়। তবে অনেকের ধারবা আনারসে থাকা এসিড বুঝি এসিডিটি বাড়িয়ে দেয়। না, আনারসে রয়েছে ৮৫ শতাংশ পানি এবং ব্রোমেলিন নামক হজমে সাহায্যকারী প্রাকৃতিক এনজাইম। যা অত্যন্ত কার্যকরী একটি পাচক রস। এটি পরিপাকতন্ত্র পরিষ্কার রাখে। তাছাড়া আনারস ত্বকের জন্যও উপকারী।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে