দাদার চিকিৎসা করাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৩ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দাদার চিকিৎসা করাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

নেত্রকোনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:১৭ ১৮ অক্টোবর ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় দাদার চিকিৎসা করাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী।

শনিবার দুপুরে তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। অ্যাডিশনাল এসপি (সদর সার্কেল) মোরশেদা খাতুন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার তরুণী দাদার চিকিৎসার জন্য পূর্বধলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য অবস্থান করছিলেন। এ সময় তার পূর্বপরিচিত পূর্বধলা উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের লালন শুক্রবার রাত ৮টার দিকে লালন ফল কিনে দেবে বলে ওই তরুণীকে ফোন দিয়ে হাসপাতালে সামনের আসতে বলেন। তরুণী সেখানে গিয়ে দাদার চিকিৎসার জন্য টাকার প্রয়োজনের কথা জানায়। 

পরে লালন তরুণীকে টাকা আনতে তার বন্ধু উপজেলার দীঘজান গ্রামে নুর নবীর সঙ্গে বন্ধুর বাসায় পাঠায়। কিছুক্ষণ পর লালনও তার বন্ধুর বাসায় আসে। প্রথমে লালন ও পরে নুরনবী তরুণীকে ধর্ষণ করে। তরুণী রাতেই বিষয়টি থানায় এসে পুলিশকে জানায়।

অ্যাডিশনাল এসপি (সদর সার্কেল) মোরশেদা খাতুন বলেন, ধর্ষক দুইজনকে ওই রাতেই আটক করা হয়েছে। শনিবার তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তরুণীর অভিযোগ মামলায় রূপান্তরিত হলে আসামি দুইজনকে আদালতে প্রেরণ করা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে