দ্বিতীয়বার বিশ্বের বুকে রেকর্ড গড়ল ঝালকাঠির সেই ছেলে

ঢাকা, বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৩ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দ্বিতীয়বার বিশ্বের বুকে রেকর্ড গড়ল ঝালকাঠির সেই ছেলে

ঝালকাঠী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১৮ ১৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৬:২৩ ১৭ অক্টোবর ২০২০

দ্বিতীয়বার বিশ্বের বুকে রেকর্ড গড়ল ঝালকাঠির ছেলে

দ্বিতীয়বার বিশ্বের বুকে রেকর্ড গড়ল ঝালকাঠির ছেলে

গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস বুকে নিজের হারানো অবস্থান পুনরুদ্ধার করলেন বাংলাদেশের ঝালকাঠির ছেলে আশিকুর রহমান জুবায়ের। ‘নিক থ্রো অ্যান্ড ক্যাচ’ ক্যাটাগরিতে ৩০ সেকেন্ডে ৩৩ বার অর্থাৎ কাঁধ দিয়ে ফুটবলকে শূন্যে ভাসিয়ে ফের কাঁধের ওপর নিয়ে আসার ফ্রি স্টাইলটিতে দ্বিতীয়বার গিনেস বুক ওয়ার্ল্ডস-এ নাম তুলেছেন তিনি।

গত ২০ সেপ্টেম্বর গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ জুবায়েরকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ভারতীয় যুবক তরুণ কুমারের ৩০ সেকেন্ডে ২৯ বারের করা রেকর্ডটি ভেঙে গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নিজের নাম আবারো তুলেন জুবায়ের।

জুবায়ের ঝালকাঠি সদরের মসজিদবাড়ি রোড এলাকার বাসিন্দা। তিনি বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র।

এর আগে জার্মানির এক যুবকের ৬০ সেকেন্ডে ৬২ বার বল শূন্যে বসানো রেকর্ড ভেঙে ফেলেন জুবায়ের। ৬০ সেকেন্ডে ৬৫ বার করে প্রথম রেকর্ড করে গিনেস বুকে নাম লিখে ঝালকাঠিবাসীকে গর্বিত করেন তিনি। 

ক্রিকেট ও ফুটবলের প্রতি আগ্রহ থেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি স্কুল পর্যায়ের দলেও সুযোগ পান জুবায়ের। ফুটবলকে ঘিরে দৃষ্টান্ত স্থাপনের স্বপ্ন দেখেন তিনি।  আর সেই চিন্তাভাবনা থেকেই কাঁধের ওপর ফুটবল নাচিয়ে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড  রেকর্ডসে দ্বিতীয়বার নাম লিখিয়েছেন ঝালকাঠির ছেলে জুবায়ের।

জুবায়েরের বাবা জালাল আহম্মদ একজন পেশাদার ঠিকাদার। তার মা একজন গৃহিনী। পরিবারে চার ছেলে মধ্যে সবার ছোট জুবায়ের। পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলায় ঝোঁক তার।

২০১৪ সালে ঝালকাঠি সরকারি হাই স্কুল থেকে কমার্স বিভাগে ‘এ প্লাস’ পেয়ে এসএসসি পরীক্ষায় পাস করেন জুবায়ের। এরপর ঢাকার মোহাম্মদপুরের রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ থেকে ‘এ’ গ্রেডে এইচএসসি পাস করেন তিনি। পরে বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগে ভর্তি হন।

পড়াশোনার পাশাপাশি ফুটবল-ক্রিকেটে আগ্রহী জুবায়ের টেলিভিশন, ইন্টারনেটে পৃথিবীর নামি-দামি খেলোয়াড়দের খেলা দেখতেন। পড়াশোনার ফাঁকে ভিন্ন ধারার ফুটবলের এই খেলায় সময় দেন।

জুবায়েরের বাবা জালাল আহম্মদ বলেন, দেশে খেলাধুলায় বেশি সাফল্য মেলে না বলেই ছেলেকে পড়াশোনার প্রতি বেশি মনোযোগী হতে বলি। কিন্তু সে দ্বিতীয়বার বিশ্বরেকর্ড করেছে। আমি চাই, সে আরো এগিয়ে যাক, বিশ্ব দরবারে দেশের মুখ উজ্জ্বল করুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ