ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক কুকুরের কামড়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন ১১ জন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৫ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক কুকুরের কামড়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন ১১ জন

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৩ ১৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৬:২৪ ১৭ অক্টোবর ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক কুকুরের কামড়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন ১১ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক কুকুরের কামড়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন ১১ জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক কুকুরের কামড়ে হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছেন ১১ জন। এর মধ্যে শিশু, বিভিন্ন বয়সের পুরুষ ও নারী রয়েছে।

শনিবার সকালে উপজেলার মোগড়া ইউপির বিভিন্ন গ্রামে ভয়ানক এসব ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- ওই ইউপির নয়াদিল গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে ইব্রাহিম, মানিক মিয়ার ছেলে জুনাইদ, তাহের মিয়ার ছেলে রুহুল আমিন, আরিফ মিয়ার মেয়ে মারিয়া, চর নারায়ণপুরের রাসেল মিয়ার মেয়ে মুন্নী, রাহিম মিয়ার ছেলে তামিম, গঙ্গাসাগরের ছেলে ইয়াছিন, অহিদ মিয়ার স্ত্রী নূরজাহান, মোরশেদ মিয়া, খোরশেদা, মালেকা। এর মধ্যে প্রথম সাতজনই শিশু। আহতদের মধ্যে কয়েকজনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী রতন খা বলেন, বেলা ১১টায় একটি কুকুর প্রথমে তামিম নামে শিশু ছেলেকে কামড় দেয়। পরে কুকুরটি একটি ঘোড়াকেও কামড় দেয়। ঘোড়ার লাথি খেয়ে ওই কুকুর আরো এক শিশুকে কামড়ায়। একে একে অন্তত ১১ জনকে কামড়িয়ে আহত করে কুকুরটি। তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। সেখানে কুকুরের কমড়ে তারা কাতরাচ্ছিলেন বলে শুনেছি।

আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) শ্যামল কুমার ভৌমিক জানান, হাসপাতালে ১১ জনের মতো এসে চিকিৎসা নিয়েছেন। গুরুতর আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ