কিশোরীকে অপহরণের পর দেড় মাস ধরে ধর্ষণ

ঢাকা, সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১১ ১৪২৭,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কিশোরীকে অপহরণের পর দেড় মাস ধরে ধর্ষণ

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:০১ ১৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ০৬:৩৪ ১৭ অক্টোবর ২০২০

কিশোরীকে অপহরণের পর দেড় মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগে প্রধান আসামিসহ চারজনকে গ্রেফতার

কিশোরীকে অপহরণের পর দেড় মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগে প্রধান আসামিসহ চারজনকে গ্রেফতার

১৫ বছর বয়সী কিশোরীকে অপহরণের পর দেড় মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগে প্রধান আসামিসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার রাতে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মাহমুদুল হাসান মামুন এ তথ্য জানান। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজার মডেল থানার কস্তুরা ঘাট এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- কক্সবাজার সদরের খুরুলিয়া ইউপির চেয়ারম্যান পাড়া এলাকার মো. আব্দুল গণির ছেলে মো. শাহাব উদ্দিন, হাটখোলা পাড়া এলাকার আব্দুল হোছাইনের ছেলে মো. নুরুল আলম, দক্ষিণ পেচারগুনা এলাকার জাফর আলমের ছেলে লোকমান হাকিম এবং পেকুয়া উপজেলার উজান টিয়া ইউপির পশ্চিম উজান টিয়া এলাকার নুর আহম্মদের ছেলে আরমান হোসেন।

 এএসপি মাহমুদুল হাসান মামুন বলেন, তার কিশোরী মেয়েকে অপহরণ করে অজানা স্থানে নিয়ে দেড় মাস যাবত ধর্ষণ করছে শাহাব উদ্দিন ও তার সহযোগীরা- ভিকটিমের মায়ের এমন অভিযোগ পেয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব।

একপর্যায়ে কক্সবাজার মডেল থানা এলাকায় আসামিদের অবস্থানের খবর পেয়ে শুরু হয় অভিযান। টানা ৩৬ ঘণ্টা অভিযান শেষে কস্তুরা ঘাট এলাকা থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধারের পাশাপাশি প্রধান আসামি শাহাব উদ্দিন ও তার তিন সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়।

এএসপি মামুন আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে তারা অপহরণ ও ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাদের কক্সবাজার মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে