১০ বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ সম্পর্ক, কৌশলে মেম্বারকে পুলিশে দিলেন নারী

ঢাকা, রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১১ ১৪২৭,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১০ বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ সম্পর্ক, কৌশলে মেম্বারকে পুলিশে দিলেন নারী

রাঙামাটি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:২০ ১৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ০১:২১ ১৭ অক্টোবর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাঙামাটির বরকল উপজেলার ভূষনছড়া ইউপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মো. আলমগীরকে এক নারীসহ অসামাজিককাজে জড়িত অবস্থায় আটক করেছে পুলিশ।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ও গোপন ছবি ফাঁসের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে অনৈতিক কাজে জড়িত ছিলেন ওই ইউপি সদস্য। অবশেষে অপর এক নারীর সঙ্গে অসামাজিককাজে লিপ্ত অবস্থায় হাতেনাতে ধরিয়ে দেয় ভুক্তভোগী সেই নারী।

ভুক্তভোগী নারী জানান, গত ১০ বছর যাবত আলমগীরের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে তার। দুইবার বিয়ে হওয়ার পর তা ভেঙে যায়। গোপন ভিডিও ও ছবি সংগ্রহ করে বারবার তাকে অবৈধ মেলামেশা করতে বাধ্য করেছেন আলমগীর। এছাড়াও নগদ টাকাও হাতিয়ে নিয়েছেন। অবশেষে বাধ্য হয়ে কোনো পথ খোলা না পেয়ে তাকে আইনের কাছে ধরিয়ে বাধ্য হয়েছেন। 

এ বিষয়ে মো. আলমগীর বলেন, ১ লাখ টাকা ধার দেবে বলে ওই নারীকে নিয়ে রাঙামাটি ডিগনিটি হোটেলে স্বামী-স্ত্রীর পরিচয়ে একটি রুম ভাড়া করে উঠি। আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সব ষড়যন্ত্র। প্রশাসনের কাছে সুষ্টু বিচার দাবি করছি।

কোতোয়ালি থানার ওসি মো. কবির হোসেন জানান, আসামির বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হইবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে