প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে অন্যত্র বিয়ে, গায়ে হলুদের স্টেজ থেকেই গ্রেফতার

ঢাকা, রোববার   ০১ নভেম্বর ২০২০,   কার্তিক ১৭ ১৪২৭,   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে অন্যত্র বিয়ে, গায়ে হলুদের স্টেজ থেকেই গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৪৩ ১৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৯:৪৪ ১৬ অক্টোবর ২০২০

প্রেমিকার ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ইসতিয়াক আহম্মেদ

প্রেমিকার ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ইসতিয়াক আহম্মেদ

নারায়ণগঞ্জে প্রেমিকাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ধর্ষণের পর অন্যত্র বিয়ে করতে গিয়ে গ্রেফতার হয়েছে ইসতিয়াক আহম্মেদ নামে এক যুবক। শুক্রবার দুপুরে গায়ে হলুদের স্টেজ থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার ইসতিয়াক আহম্মেদ নারায়ণগঞ্জ শহরের নাগবাড়ি এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে। গ্রেফতারের পর তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ইসতিয়াকের প্রেমিকা ও মামলার বাদী জানান, ইসতিয়াকের সঙ্গে ৪ বছর আগে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর বিভিন্ন সময় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হন ইসতিয়াক। এক পর্যায়ে শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হলে  নাগবাড়ি মন্দির সংলগ্ন জিকু মিয়ার বাড়ির তৃতীয় তলায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে ধর্ষণ করতে শুরু করে সে। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ২৫ ডিসেম্বরও ওই ফ্লাটে তাকে ধর্ষণ করে ইসতিয়াক। কিন্তু বিয়ের কথা তুললেই আজ নয়-কাল বলে পাঁয়তারা শুরু করে।

তিনি আরো জানান, ১৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় বিয়ে করার কথা বললে ইসতিয়াক বলে- সে বাবা-মায়ের পছন্দে অন্য একজনকে বিয়ে করবে। তাকে যেন আর বিরক্ত করা না হয়। ওই সময় বাজে ভাষায় গালিগালাজও করে ইসতিয়াক। পরে বিষয়টি অভিভাবকদের জানিয়ে থানায় অভিযোগ করেন তার প্রেমিকা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইসতিয়াক বলেন, প্রেমিকার বাসায় দুজনের সম্মতিতেই দুইবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। এর বাইরে আর কিছুই হয়নি। এরপর আমরা বাবা-মাকে আমাদের প্রেমের কথা জানাই। কিন্তু আমার প্রেমিকাকে আমার বাবা-মা মেনে নিতে অস্বীকার করে এবং অন্যত্র আমার বিয়ে ঠিক করে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, প্রাথমিক তদন্তে বাদীর অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ইসতিয়াককে গায়ে হলুদের স্টেজ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে এখন কারাগারে আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর