ইলিশ রক্ষায় সারারাত নদীতে এমপি অপু

ঢাকা, সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১১ ১৪২৭,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ইলিশ রক্ষায় সারারাত নদীতে এমপি অপু

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:১৩ ১৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ২০:০৭ ১৬ অক্টোবর ২০২০

মা ইলিশ রক্ষায় নেতা-কর্মীদের নিয়ে সারারাত নদী পাহারা দেন শরীয়তপুর-১ আসনের এমপি ইকবাল হোসেন অপু- ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মা ইলিশ রক্ষায় নেতা-কর্মীদের নিয়ে সারারাত নদী পাহারা দেন শরীয়তপুর-১ আসনের এমপি ইকবাল হোসেন অপু- ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী গত ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত সারাদেশে ইলিশ মাছ ধরা, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও কেনা-বেচা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। তাই মা ইলিশ রক্ষায় নেতা-কর্মীদের নিয়ে সারারাত নদী পাহারা দিয়েছেন শরীয়তপুর-১ আসনের এমপি ইকবাল হোসেন অপু।

ডেইলি বাংলাদেশকে ইকবাল হোসেন অপু বলেন, সরকারের নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি শরীয়তপুর-১ আসনের সব জেলেদের ভালোভাবে বোঝানো হয়েছে। জেলেদের তালিকা করে সহায়তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, গত ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ প্রজনন এলাকায় সব ধরনের মাছ ধরা বন্ধ থাকবে। কোনো জেলে অন্যায়ভাবে যেন এই কাজে জড়িত হতে না পারে এজন্য পুলিশ, প্রশাসনসহ নেতা-কর্মীরা সজাগ আছে। তাই গভীর রাত পর্যন্ত পদ্মায় নেতা-কর্মীদের নিয়ে মা ইলিশ নিধনরোধে পাহারা দিচ্ছি। নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে তারা যেন সব এলাকায় মা ইলিশ নিধনরোধে সজাগ থাকে। এছাড়া পুলিশ, প্রশাসনের সদস্যরাও অভিযান পরিচালনা করেছে।

ইলিশ প্রজনন ক্ষেত্রসহ প্রজনন মৌসুমে ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ সংক্রান্ত সরকারি নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে কাজ করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি মা ইলিশের বিচরণ ও নিরাপদ করণসহ অবাধ প্রজননের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে ইলিশের প্রবৃদ্ধি অক্ষুণ্ন রাখার লক্ষ্যে মাছ ধরার নৌযানসহ সব ধরনের ট্রলারের মাধ্যমে পদ্মা নদীতে মাছ ধরা নিষেধ করা হয়েছে। 

জানা গেছে, নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করলে কমপক্ষে এক বছর থেকে ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড অথবা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা অথবা উভয় দণ্ড দেয়ার বিধান রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/এমআরকে/আরএইচ