গরুর খামারে নিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ধর্ষণ

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

গরুর খামারে নিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ধর্ষণ

নরসিংদী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২১ ১৪ অক্টোবর ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

নরসিংদীর মাধবদীতে গরুর খামারে নিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুরে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে মাধবদী থানার মেহেরপাড়া ইউপির কবিরাজপুর গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নির্যাতিতা ওই নারীর ভাবি বাদী হয়ে অভিযুক্ত সোলায়মানকে আসামি করে মামলা করেছে।

অভিযুক্ত সোলায়মান মাধবদী থানার কবিরাজপুর গ্রামের আব্দুল কাদিরের ছেলে ও গ্রামের একটি গরুর খামারের কর্মচারী।

মাধবদী থানার ওসি মো. সৈয়দজ্জামান বলেন, নির্যাতিত নারী কুড়িগ্রাম জেলার বাসিন্দা। তার ২০১২ সালে বিয়ে হয়েছিল কিন্তু স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। তাদের একটি সন্তান রয়েছে। ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর থেকেই সে মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে যায়। তার ভাই নরসিংদীর মাধবদীতে একটি ফ্যাক্টরিতে কাজ করে। বোনকে চিকিৎসা করার জন্য মাধবদী নিজের কাছে নিয়ে আসে। মঙ্গলবার বিকেলে মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারীকে বাড়ির পাশের গরুর খামারের একটি ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে খামারের কর্মচারী সোলায়মান।

এ সময় নির্যাতিতা ওই নারীকে খুঁজতে তার ভাবি গরুর ঘরে গেলে নির্যাতিতা ওই নারীকে ফেলে অভিযুক্ত সোলায়মান পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় রাতেই মাধবদী থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

পুলিশ নির্যাতিতা ওই নারীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠায়। আর অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ