স্বামীর গাড়ি থেকে ঝাঁপ দিয়ে মারা গেলেন স্ত্রী

ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৬ ১৪২৭,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্বামীর গাড়ি থেকে ঝাঁপ দিয়ে মারা গেলেন স্ত্রী

রাজশাহী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩৯ ৩ অক্টোবর ২০২০  

স্বামী মোহাম্মদ আলীকে থানা হেফাজতে নেয়া হচ্ছে।

স্বামী মোহাম্মদ আলীকে থানা হেফাজতে নেয়া হচ্ছে।

রাজশাহী থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় বাঘা উপজেলায় স্বামীর চলন্ত প্রাইভেটকার থেকে ঝাঁপ দিয়ে মারা গিয়েছেন এক স্ত্রী। শনিবার সকালে উপজেলার মীরগঞ্জে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মোহাম্মদ আলীকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

নিহত জুলিয়া খাতুন রাজশাহীর বাঘার মীরগঞ্জের মোশারফ হোসেনের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, ছয় বছর আগে জুলিয়া খাতুনের সঙ্গে রাজবাড়ী জেলার শহিদুল মণ্ডলের ছেলে মোহাম্মদ আলীর বিয়ে হয়। এখন তাদের সংসারে পাঁচ বছরের এক ছেলে রয়েছে। গার্মেন্টস ব্যবসায় জড়িত থাকায় মোহাম্মদ আলী ঢাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।   

জুলিয়ার মামা মকুল হোসেন জানান, জুলিয়া ও তার স্বামীর মধ্যে ইদানিং বনিবনা হচ্ছিল না। তাই এক মাস ধরে জুলিয়া তার বাবার বাড়িতে ছিলেন। এমনকি স্বামীর কাছে ঢাকায় যেতে চাচ্ছিল না তিনি। গত শুক্রবার হঠাৎ জুলিয়ার স্বামী তার স্ত্রীর বাবার বাড়ি বেড়াতে আসেন। শনিবার ১০ টায় বাঘা মাজার শরীফ দেখতে যাবেনস বলে স্ত্রী-ছেলেকে প্রাইভেটকারে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন মোহাম্মদ আলী। কিন্তু মাজারে না গিয়ে ঢাকার পথে রওনা দেন স্বামী মোহাম্মদ আলী। বিষয়টি টের পেয়ে গাড়ির দরজা খুলে মাটিতে ঝাঁপ দেন জুলিয়া।এ ঘটনায় গুরুত্বর আহত হন তিনি।

তাৎক্ষণিক স্বামীসহ স্থানীয় লোকজন জুলিয়াকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে রামেক হাসপাতালে রেফার করেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে একটি মাইক্রোবাস যোগে জুলিয়াকে রামেক হাসপাতালে নিলে পথিমধ্যে তিনি মারা যান। 

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে জুলিয়ার স্বামীকে আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ